বাড়ি > ঘরে বাইরে > চিন থেকে এখনও এসে পৌঁছয়নি ৫ লাখ টেস্টিং কিট, সংকটে Covid-19 র‌্যাপিড টেস্ট
করোনাভাইরাস সংক্রমণ পরীক্ষার জরুির কিট এসে পৌঁছয়নি ভারতে। উদ্বিগ্ন প্রশাসন। ছবি: রয়টার্স। (REUTERS)
করোনাভাইরাস সংক্রমণ পরীক্ষার জরুির কিট এসে পৌঁছয়নি ভারতে। উদ্বিগ্ন প্রশাসন। ছবি: রয়টার্স। (REUTERS)

চিন থেকে এখনও এসে পৌঁছয়নি ৫ লাখ টেস্টিং কিট, সংকটে Covid-19 র‌্যাপিড টেস্ট

  • দেশীয় সংস্থা এইচএলএল লাইফ কেয়ার আগামী সোমবার থেকে মানেসরে নিজস্ব কারখানায় টেস্টিং কিট তৈরি শুরু করবে বলে জানা গিয়েছে।

টেস্টিং কিটের অভাবে বাধা পড়ছে দ্রুত Covid-19 নির্ণয়ে র‌্যাপিড টেস্ট প্রক্রিয়া। ৫ লাখ টেস্টিং কিটের বরাত দেওয়া সত্ত্বেও চিন থেকে তা এখনও এসে পৌঁছয়নি।

চিন থেকে গত ৩১ মার্চ এসে পৌঁছানোর কথা ছিল ৫ লাখ টেস্টিং কিটের। কিন্তু এখনও পর্যন্ত তা ভারতের হাতে এসে পৌঁছয়নি। ফলে থমকে গিয়েছে করোনা নির্ণয়ে র‌্যাপিড টেস্ট প্রক্রিয়া।

অন্য দিকে, দেশীয় সংস্থা এইচএলএল লাইফ কেয়ার আগামী সোমবার থেকে মানেসরে নিজস্ব কারখানায় টেস্টিং কিট তৈরি শুরু করবে বলে জানা গিয়েছে। এখানে প্রতিদিন ২০,০০০ কিট তৈরি হবে বলে খবর।

এ দিকে চিন থেকে কিট এসে যাবে, এই আন্দাজে গত ৪ এপ্রিল থেকে দেশে দ্রুত করোনা সংক্রমণ নির্ণয়ের জন্য র‌্যাপিড টেস্ট প্রক্রিয়া চালু করার নির্দেশ দেয় কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রক। কিট আসতে দেরি করায় এরপর সেই সময়সীমা পিছিয়ে ৯ এপ্রিল করা হয়।

গত ৫ এপ্রিল চিন থেকে কিট এসে না পৌঁছানোয় ICMR ঘোষণা করে যে, ৮ বা ৯ এপ্রিল কিট এসে যাবে। কিন্তু সেই সময়সীমাও পেরিয়ে গিয়েছে।

কী কারণে চিন থেকে টেস্টিং কিট এসে পৌঁছতে সময় লাগছে, তা জানাতে পারেনি স্বাস্থ্য মন্ত্রক। বিশ্বে করোনা টেস্টিং কিটের সবচেয়ে বড় জোগানদার চিন। তবে বিশ্বজুড়ে করোনা দাপটের জেরে টেস্টিং কিট সরবরাহ করে উঠতে পারছে না চিনা প্রস্তুতকারী সংস্থাগুলি। এই কারণেই এমন মন্দা দেখা দিয়েছে বলে মনে করছেন স্বাস্থ্য আধিকারিকরা।

এই পরিস্থিতিতে তাই এইচসলএল-এর মুখাপেক্ষী গোটা দেশ।

বন্ধ করুন