বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > GST meeting: ২ লাখের উপর সোনা আন্তঃরাজ্যে নিয়ে গেলেই লাগতে পারে E-way bill
২ লাখের উপর সোনা ও মূল্যবান পাথর এক রাজ্য থেকে অপর রাজ্যে নিয়ে গেলে e-way bill আর e-challan বাধ্যতামূলক করা হতে পারে। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্যে হিন্দুস্তান টাইমস)

GST meeting: ২ লাখের উপর সোনা আন্তঃরাজ্যে নিয়ে গেলেই লাগতে পারে E-way bill

  • বিশেষজ্ঞদের মতে পেট্রল আর ডিজেল যদি এই জিএসটির আওতায় থাকত তবে এটি ৭০ টাকা প্রতি লিটারে পাওয়া যেত। কিন্তু কেন এটা এখনও হয়নি? অর্থনৈতিক বিশেষজ্ঞদের মতে, বেশিরভাগ ক্ষেত্রে রাজ্য সরকার এতে রাজি হয়নি।

চণ্ডীগড়ে জিএসটি কাউন্সিলের দুদিনের মিটিং শুরু হয়েছে। এই মিটিংয়ের আলোচনা অনুসারে জানা গিয়েছে, ২ লাখের উপর সোনা ও মূল্যবান পাথর এক রাজ্য থেকে অপর রাজ্যে নিয়ে গেলে e-way bill আর e-challan বাধ্যতামূলক করা হতে পারে। ২০ কোটির উপর টার্নওভার যে কোম্পানিগুলির তাদের জন্য় এই বিশেষ ব্যবস্থা করা হতে পারে।

বর্তমানে ৫০ কোটির উপর টার্নওভার যাদের তাদের জন্য ই-ইনভয়েস ইস্যু করা বাধ্যতামূলক। এক ব্যাবসা থেকে অপর ব্যবসাতে লেনদেনের জন্য় এই পদক্ষেপ নিতে হয়।

তবে সেটি সোনা বা অন্যান্য মূল্যবান সামগ্রীর ক্ষেত্রে এতদিন ছিল না। এছাড়াও কিছু ক্ষেত্রে কর ছাড়, ছোট মাপের ই- কমার্স সাপ্লায়ারদের জন্য রেজিস্ট্রেশনের আইনে কিছুটা শিথিলতা আনা হচ্ছে।

সূত্রের খবর, এবারের মিটিংয়ে ই পরিবহণের ক্ষেত্রে ৫ শতাংশ জিএসটি লেভি আরোপ হতে পারে। অনলাইন গেম, ক্যাসিনোর ২৮ শতাংশ জিএসটি লেভি হতে পারে।ছোট ব্যবসার ক্ষেত্রে ই- কমার্স প্লাটফর্ম ব্যবহার করলে বাধ্যতামূলক রেজিস্ট্রেশনে ছাড় হতে পারে।

এদিকে ৪৭ তম জিএসটি কাউন্সিলের মিটিংয়ে বিভিন্ন রাজ্যের অর্থমন্ত্রীরা মিলিতভাবে দুটি রিপোর্ট পেশ করেছিলেন। তবে মদ, পেট্রল, ডিজেলকে জিএসটির আওতার বাইরে রাখা হয়েছে বর্তমানে। বিশেষজ্ঞদের মতে পেট্রল আর ডিজেল যদি এই জিএসটির আওতায় থাকত তবে এটি ৭০ টাকা প্রতি লিটারে পাওয়া যেত। কিন্তু কেন এটা এখনও হয়নি? অর্থনৈতিক বিশেষজ্ঞদের মতে, বেশিরভাগ ক্ষেত্রে রাজ্য সরকার এতে রাজি হয়নি।

 

বন্ধ করুন