ঘটনার নিন্দা করেছে জাতীয় মহিলা কমিশন (ছবি সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)
ঘটনার নিন্দা করেছে জাতীয় মহিলা কমিশন (ছবি সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)

গুজরাতের কলেজে অন্তর্বাস খুলিয়ে ঋতুচক্র পরীক্ষা, অধ্যক্ষার বিরুদ্ধে দায়ের FIR

  • ঘটনার তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে জাতীয় মহিলা কমিশন। কচ্ছ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য দর্শনা ঢোলাকিয়া ও গুজরাতের ডিসিপি শিবানন্দ ঝায়ের থেকেও রিপোর্ট তলব করেছে কমিশন।

গুজরাতের কলেজে অন্তর্বাস খুলিয়ে ছাত্রীদের ঋতুচক্র পরীক্ষার ঘটনায় অধ্যক্ষা-সহ চারজনের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করেছে পুলিশ। তাঁরা হলেন - কলেজের অধ্যক্ষা রীতা রানিনগার, হস্টেলের কো-অর্ডিনেটর অনিতা চৌহান, হস্টেল সুপারভাইজার রামীলাবেন ও পিওন নয়নাবেন। তাঁদের বিরুদ্ধে একাধিক ধারায় মামলা রুজু করেছে পুলিশ।

ভুজে শ্রী সহজানন্দ গার্লস ইনস্টিটিউটে কলা, বাণিজ্য ও বিজ্ঞানে স্নাতকস্তরের কোর্স হয়। সার্টিফিকেট কোর্সও হয়। স্বামীনারায়ণ মন্দিরের অনুগামীরা কলেজটি পরিচালনা করেন। হস্টেলে থাকারও ব্যবস্থা রয়েছে। হস্টেলের ছাত্রীদের দাবি, গত বৃহস্পতিবার ক্লাস চলাকালীন তাঁদের বাইরে ডাকেন অধ্যক্ষা। তারপর তাঁদের হস্টেলের শৌচাগারে নিয়ে যাওয়া হয়। ঋতুচক্র হচ্ছে কিনা তা পরীক্ষার জন্য সেখানে ৬৮ জন ছাত্রীর অন্তর্বাস খুলে পরীক্ষা করা হয়।

ঘটনাটি সামনে আসতেই সমালোচনার ঝড় ওঠে। সেই ঘটনার তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে জাতীয় মহিলা কমিশন। কলেজের ট্রাস্টি প্রবীণ পিন্ডোরিয়া ও অধ্যক্ষার থেকে ব্যাখ্যা চাওয়া হয়েছে। কমিশনের একটি দল নিগৃহীত ছাত্রীদের সঙ্গেও কথা বলবে। কচ্ছ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য দর্শনা ঢোলাকিয়া ও গুজরাতের ডিসিপি শিবানন্দ ঝায়ের থেকেও রিপোর্ট তলব করেছে কমিশন।

এ বিষয়ে সরকার পদক্ষেপ করছে বলে জানিয়েছেন গুজরাতের মুখ্যমন্ত্রী বিজয় রূপানি। তিনি বলেন, 'বিষয়টি অত্যন্ত গুরুত্ব সহকারে দেখছে সরকরা। স্বরাষ্ট্র ও শিক্ষা দফতরকে কড়া ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। শুক্রবার এফআইআর দায়ের হয়েছে।'

বন্ধ করুন