বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > প্রাচীন মিউজিয়ামকে মসজিদে রূপান্তরের ঘোষণায় ক্ষোভ, তুরস্ককে চিঠি খ্রিস্টানদের
১৯৩৪ সালে মসজিদ থেকে মিউজিয়ামে রূপান্তরিত হওয়ার পর থেকে হাজ্জিয়া সোফিয়া মুক্তচিন্তা, মত বিনিময় ও অনুপ্রেণার স্থান হিসেবে পরিচিত হয়েছে।
১৯৩৪ সালে মসজিদ থেকে মিউজিয়ামে রূপান্তরিত হওয়ার পর থেকে হাজ্জিয়া সোফিয়া মুক্তচিন্তা, মত বিনিময় ও অনুপ্রেণার স্থান হিসেবে পরিচিত হয়েছে।

প্রাচীন মিউজিয়ামকে মসজিদে রূপান্তরের ঘোষণায় ক্ষোভ, তুরস্ককে চিঠি খ্রিস্টানদের

  • এই সিদ্ধান্তের জেরে তুরস্কে মুক্তচিন্তার সদর্থক নীতিকে বদলে দিয়ে বঞ্চনা ও বৈষম্যের মতবাদকে প্রতিষ্ঠা করেছেন এরদোগান, দাবি ওয়ার্ল্ড কাউন্সিল অফ চার্চেস-এর।

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তায়িপ এরদোগানের হাজ্জিয়া সোফিয়া মিউজিয়ামকে ফের মসজিদে রূপান্তরিত করার সিদ্ধান্তে গভীর শোক ও উদ্বেগ প্রকাশ করল ওয়ার্ল্ড কাউন্সিল অফ চার্চেস।

জেনিভায় কাউন্সিলের প্রধান দফতর থেকে তুরস্কের প্রেসিডেন্টকে উদ্দেশ্য করে লেখা চিঠিতে কার্যনির্বাহী সাধারণ সম্পাদক আইওয়ান সওসা জানিয়েছেন, ‘১৯৩৪ সালে মসজিদ থেকে মিউজিয়ামে রূপান্তরিত হওয়ার পর থেকে হাজ্জিয়া সোফিয়া বরাবরই মুক্তচিন্তা, মত বিনিময় ও অনুপ্রেণার স্থান হিসেবে সারা বিশ্বের কাছে প্রতিষ্ঠা পেয়েছে।’

উল্লেখ্য, ১,৫০০ বছরের প্রাচীন এই ইউনেস্কো তালিকাভুক্ত নির্মাণ প্রথমে অর্থোডক্স খ্রিস্টান ক্যাথিড্রাল হিসেবে তৈরি হলেও ১৪৫৩ সালে ইস্তানবুলে অটোমান আক্রমণের পরে মসজিদে রূপান্তরিত হয়। 

শুক্রবার তুরস্কের প্রেসিডেন্ট এরদোগান ঘোষণা করেন, বিশ্বের অন্যতম বিস্ময়কর স্থাপত্য হিসেবে গণ্য ভবনটি মুসলিম সম্প্রদায়ের উপাসনার জন্য আবার মসজিদে রূপান্তরিত হবে। এই ঘোষণায় প্রতিবেশী গ্রিস-সহ বিশ্বের খ্রিস্টান সম্প্রদায় ক্ষুব্ধ হয়েছে। প্রসঙ্গত, এরদোগানের ঘোষণার আগে ষষ্ঠ শতকের এই বাইজ্যান্টাইন সৌধটির মিউজিয়াম হিসেবে পরিচিত খারিজ করে তুরস্কের আদালত।  

এ দিন ওয়ার্ল্ড কাউন্সিল অফ চার্চেস-এর লেখা চিঠিতেস তুরস্কের প্রেসিডেন্টের উদ্দেশে সরাসরি বলা হয়েছে, ‘হাজ্জিয়া সোফিয়াকে মসজিদে রূপান্তরিত করার সিদ্ধান্ত নিয়ে আপনি তুরস্কের মুক্তচিন্তার সদর্থক নীতিকে বদলে দিয়ে বঞ্চনা ও বৈষম্যের মতবাদকে প্রতিষ্ঠা করেছেন। এই পদক্ষেপের জেরে অনিবার্য ভাবে অনিশ্চয়তা, সন্দেহ ও অবিশ্বাসের বাতাবরণ সৃষ্টি করা হয়েছে যা ধর্মমত নির্বিশেষে মানুষের মধ্যে আলোচনা ও সহযোগিতার যে প্রয়াস আমরা এতদিন করেছি, তা সবই ব্যর্থ প্রতিপন্ন করতে চলেছে।’ 

একই সঙ্গে কাউন্সিলের তরফে আশহ্কা প্রকাশ করা হয়েছে যে, এর প্রভাবে বিশ্বের অন্যান্য দেশেও এবার এ যাবৎ প্রতিষ্ঠিত পরিচিতিগুলির পরিবর্তন ঘটিয়ে সাম্প্রদায়িক বৈষম্যমূলক পদক্ষেপ করা হতে পারে। 

বন্ধ করুন