বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > কানাডায় ৬টি মন্দিরে ভাঙচুর, দান বাক্স থেকে চুরি নগদ, উধাও প্রতিমার গয়না!

কানাডায় ৬টি মন্দিরে ভাঙচুর, দান বাক্স থেকে চুরি নগদ, উধাও প্রতিমার গয়না!

কানাডায় ৬টি মন্দিরে ভাঙচুর 

এই ঘটনায় মন্দিরের পুরোহিত এবং ভক্তরা ভয়ে ভয়ে আছেন বলে জানা গিয়েছে।

কানাডার গ্রেটার টরন্টো এএলাকায় মন্দিরের পুরোহিত এবং ভক্তরা আতঙ্কের মধ্যে রয়েছেন। কারণ গত দশ দিনে এই ধরনের ছ’টি উপাসনালয়ে ভাঙচুর ও লুটপাটে করা হয়েছে। দান বাক্স থেকে নগদ চুরি হয়েছে। এমনকি প্রতিমার গা থেকে অলঙ্কারও চুরি হয়েছে। এই ঘটনাগুলি ১৫ জানুয়ারি থেকে শুরু হয়। টরন্টোর ব্রাম্পটন শহরের শ্রী হনুমান মন্দিরে সেদিন ভাঙচুরের চেষ্টা চালানো হলেও দুষ্কৃতীরা ব্যর্থ হয়েছিল। এরপর থেকে আরও পাঁচটি মন্দিরে ভাঙচুর করা হয় টরন্টোর এলাকায়।

জানা গিয়েছে, ২৫ জানুয়ারি ব্রাম্পটনের আরও একটি মন্দিরে হানলা চালায় দুষ্কৃতীরা। মা চিন্তাপূর্ণি মন্দিরে ভাঙচুর চালানো হয়েছিল। পরে ব্রাম্পটনের গৌরী শঙ্কর মন্দির, জগন্নাথ মন্দির, মিসিসাগার হিন্দু হেরিটেজ সেন্টারে এই ধরনের ভাঙচুর চালানো হয়। হ্যামিল্টন সমাজ মন্দিরেও এই ধরনের হানা হয় বলে জানা গিয়েছে।

মিসিসাগার হিন্দু হেরিটেজ সেন্টারের তরফে জানানো হয়, ৩০ জানুয়ারি দুই দুষ্কৃতী মন্দিরে ঢুকে ভাঙুর করে এবং দান বাক্স ভেঙে নগদ টাকা চুরি করে নিয়ে যায়। মন্দিরের অফিসেও ভাঙাচুর চালানো হয়েছিল। এদিকে হিন্দুস্তান টাইমস জানতে পেরেছে প্রতিটি মন্দিরেই ভাঙুচুরের ঘটনায় জড়িত ছিলেন দু’জন করে ব্যক্তি। ভোর রাত ২টো থেকে ৩টের মধ্যেই এই ঘটনাগুলি ঘটেছে প্রতিটি ক্ষেত্রে। এই পরিস্থিতিতে সব ঘটনায় একই ব্যক্তিরা জড়িত কিনা, তা নিয়ে বাড়ছে সংশয়। এই আবহে স্থানীয় পুলিশ মন্দিরের আশেপাশে টহল বাড়ানোর কথা জানিয়েছে মন্দির কর্তৃপক্ষগুলির। এই ঘটনায় মন্দিরের পুরোহিত এবং ভক্তরা ভীত সন্ত্রস্ত বলে জানা গিয়েছে।

 

বন্ধ করুন