বাড়ি > ঘরে বাইরে > মুখপারি চূড়ো দখল করতে গিয়ে মুখ পুড়লেও মাত্র ২০০ মিটার দূরে দাঁড়িয়ে লাল ফৌজ
বড় খবর

মুখপারি চূড়ো দখল করতে গিয়ে মুখ পুড়লেও মাত্র ২০০ মিটার দূরে দাঁড়িয়ে লাল ফৌজ

লাল ফৌজ মুখপারি চূড়োর কাছে 
লাল ফৌজ মুখপারি চূড়োর কাছে 

  • এখনও চরম উত্তেজনা পূর্ব লাদাখের প্যাংগং লেকের দক্ষিণ প্রান্তে

সোমবার চলেছে গুলি। এই নিয়ে হয়েছে একপ্রস্ত দোষারোপের পালা। কিন্তু এখনও উত্তেজনা কাটেনি পূর্ব লাদাখের প্যাংগং সো লেকের দক্ষিণ অঞ্চলে। সেখানে ভারত নিয়ন্ত্রিত একটি চূড়োর মাত্র ২০০ মিটার দূরে দাঁড়িয়ে আছে লাল ফৌজ। হাতে ভয় ধরিয়ে দেওয়ার মতো অস্ত্র। 

ভারতীয় সেনার তরফ থেকে মঙ্গলবার বলা হয় যে চিনা সেনা শূন্যে গুলি চালিয়েছিল সোমবার সন্ধ্যাবেলায়। রেজাং লা-এর কাছে মুখপারি চূড়ো দখল করার জন্য অপারেশন চালিয়েছিল লাল ফৌজ। কিন্তু তাদের আটকায় ভারত। সেনার তরফ থেকে জালি দিয়ে একটা বেড়া তৈরী করা হয় লাল ফৌজকে সতর্ক করার জন্য। সেই সময় শূন্যে গুলি চালায় চিনা সেনা ভয় দেখানোর জন্য। কিন্তু সেই পরিকল্পনা ব্যর্থ হয়। 

তবে জানা গিয়েছে ৪০-৫০ জন চিনা সেনা স্বয়ংক্রিয় অস্ত্র, হাঁসদা, বল্লম ইত্যাদি নিয়ে মুখপারি চূড়োর থেকে ২০০ মিটার দূরে ওঁত পেতে বসে আছে। তাদের চেষ্টা ওই চূড়ো দখল করার। সূত্রের খবর, এই সৈনিকরাই গুলি চালিয়েছিল। গত দুই-তিন ধরে ওখানে গেঁড়ে বসে আছে তাঁরা। সোমবার ব্যর্থ চেষ্টার পরেও ফেরেনি। 

সোমবার রাতে যদিও ভারতের ওপরে দায় চাপানোর চেষ্টা করেছিল বেজিং। তারা বলে যে ভারত প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখা অতিক্রম করে গুলি চালিয়েছে। তবে এই অভিযোগ সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন বলে সরকারিভাবে জানিয়েছে ভারত। চিনের উস্কানি উপেক্ষা করে ভারতীয় সেনা সংযমের পরিচয় দিয়েছে বলে প্রতিরক্ষামন্ত্রক জানিয়েছে। 

প্রসঙ্গত, চিনের প্ররোচনামূলক গতিবিধির জন্য ২৯-৩০ অগস্ট ভারত প্যাংগংয়ের দক্ষিণ প্রান্তে বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ চূড়োয় সেনা মোতায়েন করে। এরফলে পিএলএ প্রতি মুহূর্তে কী করবে, সেটা ভারত এখন ট্র্যাক করতে পারছে। সেটাকে বন্ধ করার জন্যই মুখপারি চূড়োটি দখল করতে 

বন্ধ করুন