বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > হাইওয়েতে ডাকাতি আর অডিও টেপের বার্তায় কেরলে অস্বস্তিতে বিজেপি, কী আছে অডিওতে?
কেরলে অস্বস্তি বাড়ছে গেরুয়া শিবিরে (ফাইল ছবি)
কেরলে অস্বস্তি বাড়ছে গেরুয়া শিবিরে (ফাইল ছবি)

হাইওয়েতে ডাকাতি আর অডিও টেপের বার্তায় কেরলে অস্বস্তিতে বিজেপি, কী আছে অডিওতে?

  • নির্বাচনপর্বে কেরলে বিপুল টাকার লেনদেনে জড়িয়েছিল গেরুয়া শিবির, এমনটাই অভিযোগ উঠেছে

একে তো পরাজয়ের জ্বালা, তারপর কেরলে একের পর অভিযোগের জেরে চাপ বাড়ছে বিজেপি শিবিরে। পুলিশ সূত্রে খবর, গত ৭ই এপ্রিল এস সমসির নামে এক এক ব্যক্তি অভিযোগ করেছিলেন, কেরলের ত্রিশূর থেকে এর্নাকুলাম যাওয়ার রাস্তায় গাড়ি থামিয়ে তাঁকে মারধর করে ডাকাতি করা হয়েছে। তাঁর ২৫ লক্ষ টাকা ডাকাতি হয়েছে বলে তিনি অভিযোগ করেছিলেন। সেই টাকা সম্পত্তি কেনাবেচার জন্য নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল বলে তাঁর দাবি।

কিন্তু তদন্তে নেমে পুলিশ জানতে পারে সেই অর্থের পরিমাণ প্রায় সাড়ে তিন কোটি। পরবর্তী সময় এক আরএসএস কর্মীর প্রসঙ্গ সামনে আসে। পাশাপাশি নির্বাচনের কাজে ব্যবহার করার জন্যই যে এই টাকা নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল সেকথাও সামনে আসে। এরপর তদন্তে নেমে পুলিশ এই লুঠপাটের ঘটনায় ১৯জনকে গ্রেফতার করে। বিজেপির আলাপুঝার কোষাধক্ষ্যের কাছে এই টাকা পৌঁছে দেওয়ার কথা ছিল বলেও তদন্তে উঠে আসে। তবে এখানেই শেষ নয়। টাকার উৎস ও ডাকাতির প্রসঙ্গ নিয়ে ওবিসি মোর্চার নেতা ঋষি পালাপ্পু প্রশ্ন তুলেছিলেন। এরপর দল থেকে তাঁকে বহিস্কার করা হয় বলে খবর। গোটা ঘটনাকে কেন্দ্র করে অস্বস্তি চরমে ওঠে গেরুয়া শিবিরে।

 

এবার তার সঙ্গেই যুক্ত হয়েছে একটি অডিও টেপ। তবে এই অডিওর সত্যতা যাচাই করেনি হিন্দুস্তান টাইমস বাংলা। সূত্রের খবর, সেই অডিও টেপে শোনা যাচ্ছে দলের রাজ্য সভাপতি কে সুরেন্দ্রন ওয়ানাডের বিজেপি প্রার্থী তথা ট্রাইবাল নেতা সিকে জানুকে ১০ লক্ষ টাকা দেওয়ার কথা বলছেন। সূত্রের খবর, এনডিএতে থেকে যাওয়ার বিনিময়ে ১০ কোটির রফা হয়েছিল। তারই প্রথম ধাপ হিসাবে ১০ লাখ টাকার লেনদেন নিয়ে এই কথাবার্তা। তবে জানু ও সুরেন্দ্রন উভয়ই এই অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। তাঁদের দাবি প্রচারের খরচের ব্যাপারে আলোচনা হয়েছিল।

 

বন্ধ করুন