বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > বিজেপিতে যোগ দিতে বিরোধী বিধায়কদের আবেদন অসমের মুখ্যমন্ত্রীর, সমালোচনায় কংগ্রেস
হিমন্ত বিশ্বশর্মা, অসমের মুখ্যমন্ত্রী (ফাইল ছবি)
হিমন্ত বিশ্বশর্মা, অসমের মুখ্যমন্ত্রী (ফাইল ছবি)

বিজেপিতে যোগ দিতে বিরোধী বিধায়কদের আবেদন অসমের মুখ্যমন্ত্রীর, সমালোচনায় কংগ্রেস

  • শিলচরের প্রাক্তন সাংসদ কংগ্রেসের সুস্মিতা দেব হিন্দুস্তান টাইমসকে জানিয়েছেন, ‘অসমের রাজনৈতিক ইতিহাসে এই ঘটনা নজিরবিহীন।’

বর্ষীয়ান কংগ্রেস নেতা তথা চারবারের বিধায়ক রূপজ্যোতি কুর্মি সম্প্রতি  দল থেকে পদত্য়াগ করেছেন। বিজেপিকে যোগ দেওয়ার ব্যাপারে তাঁর পরিকল্পনার কথাও জানিয়েছেন তিনি। এদিকে শনিবার অসমের মুখ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্বশর্মা একটি প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে কংগ্রেসের বিধায়কদের বিজেপিতে যোগদানের ব্যাপারে আবেদন করেছেন। মুখ্যমন্ত্রীর এই আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে কংগ্রসের অন্দরে ব্যাপক প্রতিক্রিয়া তৈরি হয়েছে। এই আবেদনকে অনৈতিক ও অগণতান্ত্রিক বলে উল্লেখ করেছেন কংগ্রেস নেতৃত্ব।

শিলচরের প্রাক্তন সাংসদ কংগ্রেসের সুস্মিতা দেব হিন্দুস্তান টাইমসকে জানিয়েছেন, ‘অসমের রাজনৈতিক ইতিহাসে এই ঘটনা নজিরবিহীন। এভাবে একজন মুখ্যমন্ত্রী বিরোধী নেতাদের বিজেপিতে আসতে বলছেন। তিনি এমন একটি পরিস্থিতি তৈরির চেষ্টা করছেন যেখানে বিরোধী কেউ থাকবেন না। কিন্তু তিনি যে স্বপ্ন দেখছেন তা গণতান্ত্রিক নয়।’

তিনি আরও বলেন, ‘এবার একটা কঠিন লড়াই ছিল। আমরা উন্নতি করেছি। এরপর লজ্জাজনকভাবে আমাদের বিধায়কদের দলে টানার প্রস্তাব দিচ্ছে বিজেপি।’  কংগ্রেস বিধায়ক কমলাক্ষ দেব বলেন, ‘হিমন্ত বিশ্বশর্মা মুখ্যমন্ত্রীর চেয়ারের গুরুত্ব বুঝছেন না। মুখ্য়মন্ত্রী ও পার্টির নেতার অবস্থানের মধ্যে একটা ফারাক থাকে। মুখ্যমন্ত্রী হয়েও তিনি পার্টির সাধারণ ক্যাডারের মতো আচরণ করছেন।’ তবে রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের মতে, অতীতে কংগ্রেসের অনেকেই বিজেপিতে যোগ দিয়ে নানা পদও পেয়েছেন। এবার কারা মুখ্যমন্ত্রীর আবেদনে সাড়া দেন সেটাই দেখার। 

 

বর্ষীয়ান কংগ্রেস নেতা তথা চারবারের বিধায়ক রূপজ্যোতি কুর্মি সম্প্রতি  দল থেকে পদত্য়াগ করেছেন। বিজেপিকে যোগ দেওয়ার ব্যাপারে তাঁর পরিকল্পনার কথাও জানিয়েছেন তিনি। এদিকে শনিবার অসমের মুখ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্বশর্মা একটি প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে কংগ্রেসের বিধায়কদের বিজেপিতে যোগদানের ব্যাপারে আবেদন করেছেন। মুখ্যমন্ত্রীর এই আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে কংগ্রসের অন্দরে ব্যাপক প্রতিক্রিয়া তৈরি হয়েছে। এই আবেদনকে অনৈতিক ও অগণতান্ত্রিক বলে উল্লেখ করেছেন কংগ্রেস নেতৃত্ব।

শিলচরের প্রাক্তন সাংসদ কংগ্রেসের সুস্মিতা দেব হিন্দুস্তান টাইমসকে জানিয়েছেন, অসমের রাজনৈতিক ইতিহাসে এই ঘটনা নজিরবিহীন। এভাবে একজন মুখ্যমন্ত্রী বিরোধী নেতাদের বিজেপিতে আসতে বলছেন। তিনি এমন একটী পরিস্থিতি তৈরির চেষ্টা করছেন যেখানে বিরোধী কেউ থাকবেন না। কিন্তু তিনি যে স্বপ্ন দেখছেন তা গণতান্ত্রিক নয়।

তিনি আরও বলেন, এবার একটা কঠিন লড়াই ছিল। আমরা উন্নতি করেছি। এবার লজ্জাজনকভাবে আমাদের বিধায়কদের দলে টানার প্রস্তাব দিচ্ছে বিজেপি।  কংগ্রেস বিধায়ক কমলাক্ষ দেব বলেন, হিমন্ত বিশ্বশর্মা মুখ্যমন্ত্রীর চেয়ারের গুরুত্ব বুঝছেন না। মুখ্য়মন্ত্রী ও পার্টির নেতার অবস্থানের মধ্যে একটা ফারাক থাকে। মুখ্যমন্ত্রী হয়েও তিনি পার্টির সাধারণ ক্যাডারের মতো আচরণ করছেন। তবে রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের মতে অতীতে কংগ্রেসের অনেকেই বিজেপিতে যোগ দিয়ে নানা পদও পেয়েছেন।

|#+|

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

বন্ধ করুন