বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ফেসবুক পোস্ট ঘিরে উত্তেজনা, বাংলাদেশে ২ সপ্তাহ ধরে গৃহবন্দি হিন্দু পরিবার
বাংলাদেশের হিন্দু নেতা গৌরাঙ্গ চন্দ্র দে। 
বাংলাদেশের হিন্দু নেতা গৌরাঙ্গ চন্দ্র দে। 

ফেসবুক পোস্ট ঘিরে উত্তেজনা, বাংলাদেশে ২ সপ্তাহ ধরে গৃহবন্দি হিন্দু পরিবার

  • যদিও স্থানীয় হিন্দু সংগঠনের তরফে জানানো হয়েছে, যে অ্যাকাউন্ট থেকে ওই কথোপকথন হয়েছে সেটি ভুয়ো। কিন্তু গৌরাঙ্গবাবুকে মুক্তি দেয়নি পুলিশ।

ফেসবুক পোস্টকে কেন্দ্র করে বাংলাদেশে ২ সপ্তাহ ধরে গৃহবন্দি সংখ্যালঘু হিন্দু নেতার পরিবার। অভিযোগ, গৌরাঙ্গ চন্দ্র দে নামে ওই হিন্দু নেতা মুসলিম সম্প্রদায়ের আরাধ্য এক ব্যক্তির নামে কুরুচিকর মন্তব্য করেছেন। সেই কথোপকথেনর স্ক্রিনশট সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট হলে উত্তেজনা ছড়ায়। তার পর ওই নেতাকে গ্রেফতার করে পুলিশ। সেই থেকে গৃহবন্দি দে পরিবার।

ঘটনা বাংলাদেশের ঘোলা শহরের। অভিযোগ, গত ১৫ সেপ্টেম্বর গৌরাঙ্গ চন্দ্র দে নামে ওই নেতা মুসলিমদের উপাস্য সম্পর্কে চ্যাটবার্তায় কুরুচিকর মন্তব্য করেছেন। এর পর সেই কথোপকথন সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়তে বিক্ষোভ দেখাতে থাকে কিছু মুসলিম। পরিস্থিতি সামলাতে গৌরাঙ্গবাবুকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

যদিও স্থানীয় হিন্দু সংগঠনের তরফে জানানো হয়েছে, যে অ্যাকাউন্ট থেকে ওই কথোপকথন হয়েছে সেটি ভুয়ো। কিন্তু গৌরাঙ্গবাবুকে মুক্তি দেয়নি পুলিশ। ওদিকে ঘটনার পর থেকে গৃহবন্দি গৌরাঙ্গবাবুর গোটা পরিবার।

গৌরাঙ্গবাবুর স্ত্রী রানি দে বিবিসিকে জানিয়েছেন, ‘২ সপ্তাহ ঘরের বাইরে বেরোই না। এমনকী সামনের রাস্তাতেও যাই না। আমার স্বামী এমন কাজ করেননি। তাঁকে ফাঁসানো হয়েছে। ঘটনার পর থেকে গোটা পরিবার বিপর্যয়ের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে। এরকম থাকার চেয়ে না থাকা ভাল। মেয়েটা অসুস্থ হয়ে পড়েছে। স্বামী জেলে। একা মেয়ে নিয়ে আমিই সামলাচ্ছি।’ অবিলম্বে গৌরাঙ্গবাবুর মুক্তির দাবি জানিয়েছেন স্থানীয় হিন্দুরা।

 

বন্ধ করুন