বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > বাংলাদেশের খুলনা জেলায় একের পর এক মন্দির ভাঙচুর, লুঠ হল হিন্দুর বাড়ি
মন্দিরে ঢুকে প্রতিমা ভাঙচুর করে দুষ্কৃতীরা। 
মন্দিরে ঢুকে প্রতিমা ভাঙচুর করে দুষ্কৃতীরা। 

বাংলাদেশের খুলনা জেলায় একের পর এক মন্দির ভাঙচুর, লুঠ হল হিন্দুর বাড়ি

  • স্থানীয় পূজাকমিটির সভাপতি শক্তিপদ বসু জানিয়েছেন, ‘অন্তত ৬টি মন্দির ভাঙচুর হয়েছে। সঙ্গে ভাঙা হয়েছে বাড়ি ও দোকান।’

পশ্চিমবঙ্গ সীমান্ত লাগোয়া বাংলাদেশের খুলনা জেলার রূপসা উপজেলায় একের পর এক মন্দিরে ভাঙচুর চালাল দুষ্কৃতীরা। লুঠপাট হল হিন্দুদের বাড়ি। শনিবার সন্ধ্যায় এই ঘটনায় এলাকায় সংখ্যালঘু হিন্দুদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়েছে। তদন্ত শুরু করেছে স্থানীয় পুলিশ।

বাংলাদেশের সংবাদমাধ্যমসূত্রে জানা গিয়েছে, শনিবার সন্ধ্যা পৌনে ৬টা নাগাদ কয়েক শ’ যুবক রামদা, চপার, কুড়ুল নিয়ে রূপসা উপজেলার শিয়ালি গ্রামে হামলা চালায়। একের পর এক মোট ৬টি মন্দিরে ভাঙচুর চালায় তারা। ভাঙচুর করা হয় মন্দিরের মূর্তিগুলিও। এর পর স্থানীয় এক ব্যক্তির বাড়িতে লুঠপাট চালায় দুষ্কৃতীদল। স্থানীয়রা বাধা দিতে এলে তাদের ব্যাপক মারধর করা হয়। পরে এলাকাবাসীর বাধার মুখে পালায় দুষ্কৃতীরা।

স্থানীয় পূজাকমিটির সভাপতি শক্তিপদ বসু জানিয়েছেন, ‘অন্তত ৬টি মন্দির ভাঙচুর হয়েছে। সঙ্গে ভাঙা হয়েছে বাড়ি ও দোকান।’

ঘটনার খবর পেয়ে এলাকায় যান পুলিশকর্তারা। মোতায়েন করা হয় বাড়তি বাহিনী। স্থানীয় প্রশাসনের তরফে জানানো হয়েছে, দুষ্কৃতীদের চিহ্নিত করে অবিলম্বে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ওই ঘটনায় ১০ জনকে গ্রেফতার করেছে বাংলাদেশ পুলিশ।

 

বন্ধ করুন