বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > শ্রীনগরের কাছে সংঘর্ষে খতম হিজবুল প্রধান সইফুল্লা, ধৃত আরও এক জঙ্গি
রবিবার সকালে শ্রীনগর উপকণ্ঠে হিজবুল সন্ত্রাসবাদীদের বিরুদ্ধে অভিযানে রওনা দিচ্ছেন সশস্ত্র পুলিশকর্মীরা। ছবি: এপি। (AP)
রবিবার সকালে শ্রীনগর উপকণ্ঠে হিজবুল সন্ত্রাসবাদীদের বিরুদ্ধে অভিযানে রওনা দিচ্ছেন সশস্ত্র পুলিশকর্মীরা। ছবি: এপি। (AP)

শ্রীনগরের কাছে সংঘর্ষে খতম হিজবুল প্রধান সইফুল্লা, ধৃত আরও এক জঙ্গি

  • রবিবার সকালে রানগ্রেথ এলাকায় নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে খতম হল হিজবুল মুজাহিদিন-এর প্রধান কমান্ডার ডক্টর সইফুল্লা।

শ্রীনগর শহরতলির রানগ্রেথ এলাকায় নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে খতম হল সন্ত্রাসবাদী সংগঠন হিজবুল মুজাহিদিন-এর প্রধান কমান্ডার ডক্টর সইফুল্লা। রবিবার এই খবর জানিয়েছে জম্মু ও কাশ্মীর পুলিশ।

পুলিশ জানিয়েছে, গত সকালের অভিযানে ধরা পড়েছে আর এক সন্ত্রাসবাদী। 

কাশ্মীর রেঞ্জের আইজি বিজয় কুমার জানিয়েছেন, গোপন সূত্রে খবর পাওয়া গিয়েছিল যে,  রানরেথে দক্ষিণ কাশ্মীর থেকে আসা কয়েকজন সন্ত্রাসবাদী আত্মগোপন করেছে। তারই ভিত্তিতে রবিবার সকালে যৌথ অভিযানে শামিল হয় জম্মু ও কাশ্মীর পুলিশ, সিআরপিএফ এবং পরে সেনাবাহিনী।

গুলির লড়াইয়ে হিজবুল নেতা মারা যাওয়ার পাশাপাশি এক জঙ্গিকে পাকড়াওকরেছে নিরাপত্তা বাহিনী। নিহত জঙ্গির পরিবারকে ডেকে দেহ শনাক্ত করার প্রক্রিয়া চলেছে বলে খবর।

কুমার জানিয়েছেন, জঙ্গিনেতা ডক্টর সইফুল্লার মৃত্যু সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে বড় সাফল্য। এই নিয়ে হিজবুলের দুই প্রথম সারির নেতা খতম হল। গত মে মাসে সংঘর্ষে হিজবুল প্রধান পুলওয়ামার  রিয়াজ নাইকু মারা যাওয়ার পরে সইফুল্লাকেই দলের দায়িত্ব দেওয়া হয়।

আইজি জানিয়েছেন, শ্রীনগর ও তার উপকণ্ঠে কোনও জঙ্গি অনুপ্রবেশ ঘটলে সঙ্গে সঙ্গে নিরাপত্তা বাহিনীর কাছে খবর পৌঁছে যায়। এর জন্য জম্মু ও কাশ্মীর পুলিশের শক্তিশালি নেটওয়ার্কের অবদান গুরুত্বপূর্ণ, তিনিব জানান। 

রানরেথে অভিযান সংঘর্ষ থামলেও সন্ত্রাসবাদীদের খোঁজে আপাতত চিরুনি তল্লাশি চলেছে, জানিয়েছেন আইজি।

বন্ধ করুন