বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ধৃতদের ৫৩ শতাংশের বয়স তিরিশের কম, UAPA সংশোধনীর কোনও পরিকল্পনা নেই কেন্দ্রের
UAPA সংশোধনীর কোনও পরিকল্পনা নেই কেন্দ্রের (ফাইল ছবি এেএনআই) (HT_PRINT)

ধৃতদের ৫৩ শতাংশের বয়স তিরিশের কম, UAPA সংশোধনীর কোনও পরিকল্পনা নেই কেন্দ্রের

  • গত তিন বছরে ইউএপিএ-র আওতায় সবথেকে বেশি গ্রেপ্তারির ঘটনা ঘটেছে উত্তরপ্রদেশে। এরপরই তালিকায় আছে মণিপুর এবং জম্মু ও কাশ্মীর।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক মঙ্গলবার সংসদকে জানিয়েছে যে বেআইনি কার্যকলাপ প্রতিরোধ আইন (ইউএপিএ) সংশোধন করার কোনও পরিকল্পনা নেই সরকারের। মন্ত্রণালয় তরফে জানা গিযেছে, গত বছর এই আইনে দেশে মোট ১৩২১ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ২০১৮ সাল থেকে ২০২০ সালের মধ্যে ইউএপিএ আইনের আওতায় মোট ৪ হাজার ৬৯০ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ধৃতদের মধ্যে ৫৩.৩২ শতাংশ তিরিশ বছরের কম বয়সী।

লোকসভায় মহেশ সাহু, অধীর রঞ্জন চৌধুরী, মালা রায় এবং কে মুরলীধরন সহ বিরোধী দলগুলির ১১ জন নেতার এক প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক গতকাল জানিয়ে দেয় যে আপাতত ইউপিএ-তে সংশোধন আনার কোনও পরিকল্পনা নেই কেন্দ্রের। সংসদ সদস্যরা জানতে চেয়েছিলেন যে নিরপরাধ লোকদের হয়রানি রোধ করার জন্য ইউএপিএ আইন সংশোধন করার পরিকল্পনা করছে কিনা।উল্লেখ্য, এই আইনে ধৃতদের মধ্যে বিপুল সংখ্যক অভিযুক্ত খালাস পাওয়ার যুক্তিটিকে তুলে ধরে এই আইনের অপব্যবহারের প্রেক্ষিতে এই প্রশ্ন করা হয়েছিল।

এদিকে এই আইন সংক্রান্ত পরিসংখ্যান দিতে গিয়ে স্বারাষ্ট্র মন্ত্রকের প্রতিমন্ত্রী নিত্যানন্দ রাই জানান, ২০১৮ সাল থেকে ২০২০ সালের মধ্যে উত্তরপ্রদেশ থেকে ইউএপিএর আওতায় গ্রেপ্তার হয়েছে সর্বোচ্চ ১ হাজার ৩৩৮ জন। এদের মধ্যে ৯৩১ জন অর্থাৎ প্রায় ৬৯.৫৮ শতাংশের বয়স ৩০ শতাংশের কম। এর পরেই এই আইনে সবথেকে বেশি গ্রেপ্তারির ঘটনা ঘটেছে মণিপুরে। সেখানে মোট গ্রেপ্তার হযেছে ৯৪৩ জন। আর জম্মু ও কাশ্মীরে গ্রেফতার এই সময়কালে গ্রেপ্তার হয়েছে ৭৫০ জন।

 

বন্ধ করুন