বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ভাঁড়ারঘরে পোকার উৎপাত? মুশকিল আসান হবে ঘরোয়া টোটকায়
আটায় নিম পাতা রাখলে পিঁপড়ে ও পোকা ধরে না।
আটায় নিম পাতা রাখলে পিঁপড়ে ও পোকা ধরে না।

ভাঁড়ারঘরে পোকার উৎপাত? মুশকিল আসান হবে ঘরোয়া টোটকায়

  • প্যাকেট খোলার কয়েক দিনের মধ্যেই ময়দা, সুজি, বেসনে পোকা ধরতে শুরু করে। সমস্যা দূর করা যায় সহজ কিছু প্রক্রিয়ায়।

লুচি, হালুয়া, ফুলুরির নাম শুনলেই জিভে জল আসে না, এমন মানুষের দেখা পাওয়া দুষ্কর। কিন্তু এই পদগুলির মূল উপাদান বাড়িতে দীর্ঘ দিন টিকিয়ে রাখাই মাথাব্যথার কারণ হয়ে দাঁড়ায়। প্যাকেট খোলার কয়েক দিনের মধ্যেই ময়দা, সুজি, বেসনে পোকা ধরতে শুরু করে। তবে এমন কিছু পদ্ধতি আছে, যার সাহায্যে এই সব খাবার সংরক্ষণ করা যেতে পারে। রইল এমনই কিছু জরুরি টিপস।

  • আটায় নিমপাতা রাখলে পিঁপড়ে ও পোকা ধরে না। নিম পাতা না-পেলে তেজপাতা ও বড় এলাচও রাখা যেতে পারে।
  • দালিয়া ও সুজিকে পোকাদের হাত থেকে বাঁচানোর জন্য প্রথমে এগুলিকে শুকনো ভেজে নিতে হবে। এর পর এতে ৮-১০টি এলাচ দিয়ে এয়ার টাইট কন্টেনরে রেখে দিলেই কেল্লাফতে।
  • ময়দা ও বেসনে খুব তাড়াতাড়ি পোকা ধরে যায়। তাই এ সব কৌটোয় ভরে তাতে বড় এলাচ রেখে দিলেই পোকা দূরে রাখা যাবে।
  • আবার ১০ কেজি চালে ৫০ গ্রাম পুদিনাপাতা দিয়ে রাখলে পোকার হাত থেকে সুরক্ষিত রাখা যায়।
  • আবহাওয়া পরিবর্তনের ফলে ছোলা বা ডালে পোকা ধরতে শুরু করে। এতে শুকনো গোটাহলুদ ও নিমপাতা দিয়ে রাখলে পোকা ধরে না।
  • বর্ষাকালে নুন ও চিনি গলতে শুরু করে। তাই নুন ও চিনিকে কাচের কৌটোয় রাখা উচিত। এই কৌটোয় সামান্য নুনও রাখা যেতে পারে।

বন্ধ করুন