বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > আগরতলায় বাম প্রার্থীর বাড়িতে হামলা, কাঠগড়ায় বিজেপি
 সিপিএম
 সিপিএম

আগরতলায় বাম প্রার্থীর বাড়িতে হামলা, কাঠগড়ায় বিজেপি

  • ইতিমধ্যে বামেরা অভিযোগ করেছে, শান্তিরবাজার, উদয়পুর, বিশালগড়, মোহনপুর, রাণীরবাজার ও দুটি নগর পঞ্চায়েত জিরানিয়া ও কমলপুরে বাম প্রার্থীরা মনোনয়নপত্র জমা দিতে পারেনি।

ত্রিপুরায় পুরভোটের প্রস্তুতি শুরু হয়ে গিয়েছে। কিছুদিন আগেই ত্রিপুরার মাটিতে তৃণমূলের নেতা–কর্মীদের আক্রান্ত হওয়ার খবর সামনে এসেছে। এবার আগরতলায় এক বামপ্রার্থীর বাড়িতেও হামলার ঘটনা ঘটল। গোটা ঘটনায় সন্ত্রস্ত এলাকার বাম কর্মী–সমর্থকরা।

জানা গিয়েছে, শনিবার রাতে আগরতলা পুরনিগমের ৪৯ নম্বর ওয়ার্ডের সিপিএম প্রার্থী ধনমনী সিংহের বাড়িতে হামলা চালায় একদল দুষ্কৃতী। প্রার্থী পদ প্রত্যাহারে চাপ দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে বিজেপির বিরুদ্ধে। ইতিমধ্যে বামেরা অভিযোগ করেছে, শান্তিরবাজার, উদয়পুর, বিশালগড়, মোহনপুর, রাণীরবাজার ও দুটি নগর পঞ্চায়েত জিরানিয়া ও কমলপুরে বাম প্রার্থীরা মনোনয়নপত্র জমা দিতে পারেনি। এবার খোদ আগরতলার বুকে বাম প্রার্থীর বাড়িতে আক্রমণ চালানোর অভিযোগ উঠল বিজেপির বিরুদ্ধে। শুধু ধনমনী সিংহের বাড়িতেই নয়, এর আগেও একাধিক বাম প্রার্থীদের মনোনয়ন পত্র প্রত্যাহার করার জন্য চাপ দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে বিজেপির বিরুদ্ধে।

বিজেপির এই কর্মকাণ্ডের প্রসঙ্গে ত্রিপুরায় সিপিএমের রাজ্য সম্পাদক জিতেন চৌধুরী অভিযোগ করেন, রাজ্যে গণতন্ত্র ও সংবিধানকে হত্যা করেছে বিজেপি। রাজ্য নির্বাচন কমিশনার সাংবিধানিক দায়দায়িত্ব পালনে চরম ব্যর্থ হয়েছেন। রাজ্য পুলিশ ও প্রশাসনের ধারাবাহিক নির্লিপ্ততা, বিজেপির দ্বারা সংগঠিত বল্গাহীন সন্ত্রাসের কারণেই নির্বাচকমণ্ডলীর কোনও সাংবিধানিক অধিকার নেই। এর আগে ত্রিপুরায় সিপিএম পার্টির সদর দফতরে আগুন লাগার ঘটনা ঘটে। আগুন লাগানোর অভিযোগ ওঠে বিজেপির বিরুদ্ধেই। এবার পুরভোটের মুখে দলের প্রার্থীদের হামলা চালানোর অভিযোগ উঠল। তবে শুধু সিপিএম নয়, প্রথমবার ত্রিপুরায় নির্বাচনে পা রাখা তৃণমূলের নেতা–কর্মী–সমর্থকদের ওপরও হামলার ঘটনা ঘটেছে। গাড়িতে ভাঙচুর চালানো হয়েছে।

 

বন্ধ করুন