বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > House of Man kicking GF's face Bulldozed: বিয়ের প্রস্তাব পেয়ে প্রেমিকার মুখে লাথি মারার পরই বুলডোজারে ঘর ভাঙল যুবকের

House of Man kicking GF's face Bulldozed: বিয়ের প্রস্তাব পেয়ে প্রেমিকার মুখে লাথি মারার পরই বুলডোজারে ঘর ভাঙল যুবকের

অভিযুক্ত যুবকের নাম পঙ্কজ ত্রিপাঠী, তারই বাড়ি ভেঙে দেওয়া হল বুলডোজার দিয়ে

অভিযুক্ত যুবকের নাম পঙ্কজ ত্রিপাঠী। পঙ্কজকে উত্তরপ্রদেশের মির্জাপুর থেকে গ্রেফতার করা হয় শনিবার রাতে। এরপর রবিবার পঙ্কজের বাড়ি ভেঙে দেওয়া হয় জেসিবি মেশিন এনে।

প্রেমিকার মুখে লাথি মারার অভিযোগ উঠেছিল ২৪ বছর বয়সি যুবকের বিরুদ্ধে। পুলিশ তাকে আটক করলেও পরে ছেড়ে দিয়েছিল। এরপর থেকেই পলাতক ছিল সেই যুবক। সেই অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে রবিবার জানায় পুলিশ। শুধু তাই নয়, অভিযুক্ত যুবকের বাড়ি বুলডোজার দিয়ে গুঁড়িয়ে দেওয়া হয়েছে বলেও জানায় পুলিশ। এই গোটা ঘটনাটি ঘটেছে মধ্যপ্রেদেশের রেওয়াতে। ধৃত যুবকের নাম পঙ্কজ ত্রিপাঠী। পঙ্কজকে উত্তরপ্রদেশের মির্জাপুর থেকে গ্রেফতার করা হয় শনিবার রাতে। রবিবার পঙ্কজের বাড়ি ভেঙে দেওয়া হয় জেসিবি মেশিন এনে। জানা গিয়েছে, পঙ্কজ গাড়ি চালিয়ে উপার্জন করত। কিন্তু পঙ্কজের লাইসেন্স বাতিল করা হয়েছে। এদিকে সময় মতো পঙ্কজের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ না করায় স্থানীয় থানার এক পুলিশকর্মীকেও সাসপেন্ড করা হয়েছে।

এদিকে পঙ্কজের মারের ভিডিয়ো ইতিমধ্যেই ভাইরাল হয়ে গিয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। অভিযুক্ত যুবকে প্রথমে আটক করলেও পরে ছেড়ে দেয় পুলিশ। জানা গিয়েছে, ঘটনাটি গত বুধবার ঘটে। এরপরই অভিযুক্ত যুবকের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ১৫১ নং ধারায় (শান্তি নষ্ট) মামলা রুজু করে পুলিশ। এর জেরে পরে সেই যুবক ছাড়া পেয়ে যায়। এদিকে ঘটনার বিষয়ে পুলিশে জানিয়েছেন মার খাওয়া যুবতী। তবে তিনি অভিযোগ দায়ের করেননি। তবে ঘটনার ভিডিয়ো ভাইরাল হতেই পুলিশ স্বতপ্রণোদিত ভাবে সেই যুবকের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩২৩ নং ধারায় মামলা রুজু করে। তবে পুলিশ তাকে গ্রেফতার করার আগেই সে পালিয়ে যায়। পরে আজকে গ্রেফতার করা হয় অভিযুক্তকে। এদিকে প্রাথমিক ভাবে অভিযুক্ত পঙ্কজের বিরুদ্ধে ১৫১ নং ধারায় মামলা করার প্রেক্ষিতে পুলিশের দিকে অবহেলার অভিযোগ ওঠে। তবে পড়ে সমালোচনার মুখে পড়ে পুলিশ তৎপর হয়।

এদিকে যে ব্যক্তি গোটা ঘটনাটির ভিডিয়ো করেছেন, তাঁর বিরুদ্ধে নির্যাতিতা অভিযোগ দায়ের করেছেন। সেই ভিডিয়ো করা ব্যক্তিকেও পুলিশ গ্রেফতার করেছে। তার বিরুদ্ধে আইটি আইনে মামলা রুজু করা হয়েছে। ভাইরাল ভিডিয়োতে দেখা যাচ্ছে, যুবক-যুবতী দাঁড়িয়ে বিয়ে নিয়ে কথা বলছেন। এরপর যুবতীর বয়ফ্রেন্ড ভিডিয়ো করা ব্যক্তিকে ক্যামেরা বন্ধ করতে বলে। এরপরই অভিযুক্ত প্রেমিক সেই যুবতীকে চড় মেরে মাটিতে ফেলে দেয়। মাটিতে পড়ে গিয়ে বেদনায় আর্তনাদ করে ওঠে সেই যুবতী। এরপর সেই যুবক তার প্রেমিকার মুখে লাথি মারে। এরপর সেই যুবক তার প্রেমিকাকে মাটি থেকে তুলে ধরেন। তবে মার খেয়ে যুবতী সোজা হয়ে দাঁড়াতে পারছিলেন না। পুলিশ জানায়, ভিডিয়োটি মৌগঞ্জ এলাকার ধেরা গ্রামের।

বন্ধ করুন