বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > কীভাবে ব্যবহার করবেন WhatsApp Pay-এক নজরে জেনে নিন
ফাইল ছবি
ফাইল ছবি

কীভাবে ব্যবহার করবেন WhatsApp Pay-এক নজরে জেনে নিন

  • কীভাবে টাকা পাঠাবেন ও পাবেন, বিষদে জানুন। 

দুবছরের বিটা ট্রায়ালের পর অবশেষে ভারতে আনুষ্ঠানিক ভাবে যাত্রা শুরু করল WhatsApp Pay. অর্থাৎ এবার হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমেই টাকা পাঠাতে পারবেন। ইউপিআইয়ের মাধ্যমে টাকা পাঠানো যাবে। গুগল পে, পেটিএম, ফোনপে-র সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করবে WhatsApp Pay. প্রাথমিক ভাবে ২ কোটি মানুষ ভারতে এই অ্যাপ ব্যবহার করার সুযোগ পাবেন। ভারতে ৪০ কোটি মানুষ ব্যবহার করেন হোয়াটসঅ্যাপ। 

1

এতে কি ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট লাগবে?

WhatsApp Pay- ইউপিআইয়ের মাধ্যমে টাকা ট্রান্সফার করে। এর জন্য প্রয়োজন ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট। ইউপিআইয়ের আওতায় ১৬০টি ব্যাঙ্ক আছে বর্তমানে। কোন কোন ব্যাঙ্কের মাধ্যমে টাকা লেনদেন করা যাবে সেটি WhatsApp Pay-এর মধ্যে লেখা আছে। 

2

কীভাবে WHATSAPP PAY ব্যবহার করবেন?

প্রথমে হোয়াটসঅ্যাপের সর্বশেষ ভার্সানটি ডাউনলোড করে নিন। এরপর একটি জিনিস দেখে নিন যে আপনি যে ফোন নম্বর ব্যাঙ্কে দিয়ে রেখেছেন সেটাই হোয়াটসঅ্যাপে ব্যবহার করছেন কিনা। এর কারণ হল ইউপিআই ভেরিফিকেশনের সময় একটি অটো ডিটেক্ট এসএমএস পাঠানো হবে এই দুটি নম্বর একই কিনা, সেটা যাচাই করার জন্য। 

3

কীভাবে টাকা পাঠাবেন এই অ্যাপের মাধ্যমে?

একবার WhatsApp Pay সেট আপ ও ব্যাঙ্কের সঙ্গে লিংক করে নেওয়ার পর, সরাসরি চ্যাট উইন্ডো থেকেই টাকা পাঠানো যাবে। অ্যান্ড্রয়েডে অ্যাটাচমেন্ট আইকনের হিসেবে আসবে, আইফোনে + হিসেবে আসবে ওপরের দিকে। ওটাকে ট্যাপ করলেই পেমেন্টের অপশন আসবে। সেখানে টাকা দিয়ে প্রয়োজনে কমেন্ট যুক্ত করে দিতে পারেন। 

4

কীভাবে টাকা পাবেন এই অ্যাপের মাধ্যমে?

চ্যাট উইন্ডোতে পেমেন্ট অপশনটি সিলেক্ট করতে হবে। স্ক্রিনে আপনি লিখে দিতে পারেন কত টাকা আপনি চান, এরপর রিকোয়েস্টে ক্লিক করতে হবে। এতে নোটিফিকেশন যাবে যার থেকে টাকা পান। সেই নোটিফিকেশনে ক্লিক করে সহজেই টাকা পাঠাতে পারবে অন্যজন। 

5

KYC করার প্রয়োজন আছে?

এটি ব্যাঙ্কের সঙ্গে যুক্ত, যেখানে আগে থেকেই কেওয়াইসি করা আছে। তাই আলাদা করে প্রয়োজন নেই। 

বন্ধ করুন