বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > শ্বশুরবাড়িতে স্ত্রী'র আঘাতের জন্য প্রাথমিকভাবে দায়ী স্বামী : সুপ্রিম কোর্ট
সুপ্রিম কোর্ট। (ফাইল ছবি, সৌজন্য হিন্দু্স্তান টাইমস)
সুপ্রিম কোর্ট। (ফাইল ছবি, সৌজন্য হিন্দু্স্তান টাইমস)

শ্বশুরবাড়িতে স্ত্রী'র আঘাতের জন্য প্রাথমিকভাবে দায়ী স্বামী : সুপ্রিম কোর্ট

শীর্ষ আদালত জানিয়েছে,যদি অন্য কোনও আত্মীয়ের কারণেও স্ত্রী'র আঘাত লাগে, তাহলেও প্রাথমিকভাবে স্বামীকেই দায়ী করা হবে।

শ্বশুরবাড়িতে থাকাকালীন স্ত্রী'র যে কোনও আঘাতের জন্য প্রাথমিকভাবে দায়ী হবেন স্বামী। একটি মামলার শুনানিতে এমনই মন্তব্য করল সুপ্রিম কোর্ট। স্ত্রী'কে নিগ্রহের মামলায় এক ব্যক্তির আগাম জামিনের আর্জির শুনানি চলছিল। সেই আর্জি খারিজ করে সুপ্রিম কোর্ট জানায়, যদি অন্য কোনও আত্মীয়ের কারণেও স্ত্রী'র আঘাত লাগে, তাহলেও প্রাথমিকভাবে স্বামীকেই দায়ী করা হবে। উল্লেখ্য, অভিযুক্ত ব্যক্তির এটি তৃতীয় বিয়ে এবং তাঁর স্ত্রী'র দ্বিতীয়।

বিয়ের এক বছর পর ২০১৮ সালে একটি সন্তান হয় তাঁদের। গত বছর জুনে লুধিয়ানার পুলিশে নিজের শ্বশুরবাড়ির বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন নির্যাতিতা মহিলা। অভিযোগ ছিল, ক্রমশ পণের দাবিতে চাপ দেওয়া হচ্ছিল। কিন্তু তা দিতে না পারায় স্বামী, শ্বশুর ও শাশুড়ি তাঁর উপর নির্মম অত্যাচার চালাত। 

অভিযুক্তের আইনজীবী কুশাগ্র মহাজন আগাম জামিনের পক্ষে সওয়াল করলে প্রধান বিচারপতি এস এ বোবদের নেতৃত্বাধীন বেঞ্চ বলে, ‘আপনি কেমন মানুষ? মহিলা অভিযোগ করেছেন যে আপনি গলা টিপে তাঁর হত্যা করতে প্রস্তুত ছিলেন। মহিলা অভিযোগ করেছেন যে আপনি গর্ভপাত করতে বাধ্য করেছিলেন। আপনি কেমন মানুষ যিনি ক্রিকেট ব্যাট দিয়ে নিজের স্ত্রী'কে মারধর করবেন?’

প্রত্যুত্তরে অভিযুক্তের আইনজীবী জানান, মহিলার অভিযোগ অনুযায়ী যে তাঁর শ্বশুর ব্যাট দিয়ে মারধর করতেন। এরপরই সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বাধীন বেঞ্চ জানায় যে, ‘আপনি বা আপনার বাবা— কে তাঁকে ব্যাট দিয়ে মেরেছেন, সেটা বিষয় নয়। শ্বশুরবাড়িতে মহিলা আঘাত পেলে তাঁর প্রাথমিক দায়িত্ব স্বামীর উপর বর্তায়।’

বন্ধ করুন