বাড়ি > ঘরে বাইরে > Teachers Day: অনলাইনেই খুশি করা যায় প্রিয় শিক্ষককে, রইল টিপস
ভারতে ৫ সেপ্টেম্বর শিক্ষক দিবস পালিত হয়।
ভারতে ৫ সেপ্টেম্বর শিক্ষক দিবস পালিত হয়।

Teachers Day: অনলাইনেই খুশি করা যায় প্রিয় শিক্ষককে, রইল টিপস

  • এ বছর করোনাভাইরাস সংক্রমণের জেরে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলি বন্ধ। তাই এখন নিউ নরমাল হল ভার্চুয়াল সেলিব্রেশন।

৫ সেপ্টেম্বর শিক্ষক দিবস পালিত হয়। প্রথম উপ-রাষ্ট্রপতি তথা দ্বিতীয় রাষ্ট্রপতি ডক্টর সর্বপল্লি রাধাকৃষ্ণণের জন্মজয়ন্তীই ভারতে শিক্ষক দিবস হিসেবে পালিত হয়। এই দিনটিতে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলিতে নানান আনন্দ-অনুষ্ঠানের মাধ্যমে ছাত্র-ছাত্রীরা শিক্ষকদের প্রতি ভালোবাসা ও সম্মান প্রকাশ করে থাকে। 

এ বছর করোনাভাইরাস সংক্রমণের জেরে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলি বন্ধ। আবার সামাজিক নিরাপত্তা বিধির কারণে প্রত্যেকবারের  মতো অনুষ্ঠান আয়োজনের ক্ষেত্রেও সন্দেহ থেকেই যায়। তবে অতিমারীর জেরে নিউ নরমাল হল ভার্চুয়াল সেলিব্রেশন। তাতে তো কোনও বাধা নেই। এখানে জেনে নিন কী ভাবে ভার্চুয়াল সেলিব্রেশনের মাধ্যমে শিক্ষকদের প্রতি নিজের কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করতে পারেন।

১. থ্যাঙ্ক ইউ ভিডিও বানিয়ে- এর মাধ্যমে শিক্ষকদের মুখে হাসি তো ফোটানো যাবেই, পাশাপাশি এমন ভিডিও আবেগপ্রবণও করে তুলতে পারে আপনার শিক্ষককে। এ ক্ষেত্রে নিজের প্রিয় শিক্ষক-শিক্ষিকাকে ধন্যবাদ জানিয়ে এমন অনেক কথাই বলতে পারেন, যা সামনাসামনি বলতে পারেননি। আবার এই সময় স্কুল ও ক্লাসরুম কতটা মিস করছেন তা-ও জানাতে পারেন। এর পর ভিডিওটি এডিট করে তা শিক্ষককে মেল করে দিন।

২. স্লাইড শো বানান- ভিডিও এডিটিং কঠিন মনে হচ্ছে? তা হলে বানিয়ে ফেলুন স্লাইড শো প্রেসেন্টেশন। এখানে আপনারা শিক্ষকদের ধন্যবাদ জানিয়ে স্লাইড শো বানাতে পারেন। আবার স্কুল ও শিক্ষকদের ছবি থাকলে তো কথাই নেই। একটি সুন্দর ব্যাকগ্রাউন্ড থিম সেট করে এই ছবিগুলি লাগিয়ে দিতে পারেন। আবার ছাত্রদের কোনও নোট বা চিঠিও এই স্লাইড শোয়ে অন্তর্ভুক্ত করা যেতে পারে।

৩. চিঠি- অনলাইনে কিছু করতে না-চাইলে ফিরে যান পুরনো দিনে। আগে যেমন চিঠির মাধ্যমে একে অপরের কুশল জানা হত, তেমনই এবারও করতে পারেন। এ ক্ষেত্রে শিক্ষকদের উদ্দেশে চিঠি পোস্ট করতে পারেন।

৪. ডিজিটাল গিফ্ট কার্ড- শিক্ষকদের ডিজিটাল গিফ্ট কার্ডও পাঠাতে পারেন। আবার বর্তমানে অধিকাংশ স্থানে ডেলিভারির সুযোগ রয়েছে। শিক্ষককে তাঁর পছন্দের বই থেকে শুরু করে যে কোনও উপহারই পাঠানো যেতে পারে।

৫. অনলাইন ক্লাস অ্যাক্টিভিটি- এখন অনলাইন ক্লাসই করানো হচ্ছে। সে ক্ষেত্রে অন্যান্য ছাত্র-ছাত্রীদের সঙ্গে পরিকল্পিত ভাবে বেশ কয়েকটি অ্যাক্টিভিটি করতে পারেন। যেমন-

* অনলাইন ক্লাসের সময় সব ছাত্র-ছাত্রী নিজের শিক্ষকের অনুকরণে সেজে তাঁকে সারপ্রাইজ দিতে পারে।

* আবার ক্লাসরুমের সঙ্গে জড়িত হাসি-কান্নায় ভরা নানান ঘটনার স্মৃতিচারণ করেও শিক্ষককে স্পেশাল ফিল করাতে পারেন। এমনকি শিক্ষকের কোনও বিশেষ অভ্যাস পছন্দ হলে, তা বলতে পিছ-পা হয়ো না।

* শিক্ষকের জন্য কবিতা লিখে বা শিক্ষকের পছন্দের কবিতা আবৃত্তি করেও এই দিনটিকে বিশেষ করে তোলা যেতে পারে। 

* স্কুলে শিক্ষক দিবসের অনুষ্ঠানে যেমন গানের মাধ্যমে গুরুকে শ্রদ্ধাঞ্জলি দেওয়া হয়, তেমনই অনলাইন ক্লাসেও করা যেতে পারে।

৬. শিক্ষকের উদ্দেশে সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজের মনের কথা পোস্ট করা যায়। শিক্ষককে ধন্যবাদ জানানোর জন্যও এই প্ল্যাটফর্মটিকে কাজে লাগাতে পারেন। এ ছাড়া শিক্ষকের ছবিকে নিজের স্টেটাসে শেয়ার করেও তাঁকে আবেগে ভরিয়ে দেওয়া যায়।

বন্ধ করুন