বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > টাকা না মেটালে লাইট নিভিয়ে দেব! প্রচন্ড গরমে পাকিস্তানকে হুঁশিয়ারি 'বন্ধু' চিনের
বকেয়া না মেটালে পাকিস্তানের বিদ্যুৎ কেন্দ্র বন্ধ করে দেওয়ার হুঁশিয়ারি চিনের ফাইল ছবি : রয়টার্স (REUTERS)

টাকা না মেটালে লাইট নিভিয়ে দেব! প্রচন্ড গরমে পাকিস্তানকে হুঁশিয়ারি 'বন্ধু' চিনের

  • পাক সংবাদপত্র ডনের মতে, চিনের আধিকারিকরা কর, ভিসা সহ নানা ক্ষেত্রে জটিলতার কথাও তুলে ধরেছিলেন। সূত্রের খবর, ২৫জন চিনা প্রতিনিধি এক এক করে পাক মন্ত্রীর কাছে নালিশ করেন। তখনই চিনের প্রতিনিধিরা জানিয়ে দেন, বকেয়া টাকা না মেটালে পাওয়ার প্ল্যান্ট কিছুদিনের মধ্যে বন্ধ করে দেওয়া হবে।

একেবারে চরম অস্বস্তিতে পড়ল পাকিস্তান। বড় ধাক্কা এসেছে বন্ধু চিনের কাছ থেকেই। চিনের কোম্পানি সরাসরি পাকিস্তানের সরকারকে হুঁশিয়ারি দিয়েছে, ৩০০ বিলিয়ন টাকা যদি না মেটান তবে পাকিস্তানের লাইট আমরা নিভিয়ে দেব। প্রায় ২৪টি চিনা কোম্পানি সোমবার পাকিস্তানকে জানিয়ে দিয়েছে, চলতি মাসে পাওয়ার প্ল্যান্টগুলিকে বন্ধ করতে তারা বাধ্য হচ্ছে।ওই কোম্পানিগুলি প্রায় ৩০০ বিলিয়ন টাকা ধার দিয়েছে পাকিস্তানকে। সেই টাকা না মেটানোর জেরেই মারাত্মক ক্ষুব্ধ ওই চিনা কোম্পানিগুলি।

চিন- পাকিস্তান ইকোনমিক করিডরের আওতায় ৩০টি চিনা কোম্পানি কাজ করে। পাকিস্তানের বিদ্যুৎ পরিষবা, যোগাযোগ, রেল সহ বিভিন্ন সেক্টরে তারা কাজ করছে। এদিকে সোমবার পাকিস্তানের প্ল্যানিং ও উন্নয়ন মন্ত্রী আহসান ইকবাল চিনের কোম্পানিগুলির সঙ্গে বৈঠক করেন। সূত্রের খবর, সেই বৈঠকেও বিশেষ উচ্চবাচ্য করতে পারেননি পাক মন্ত্রী।

এদিকে পাক সংবাদপত্র ডনের মতে, চিনের আধিকারিকরা কর, ভিসা সহ নানা ক্ষেত্রে জটিলতার কথাও তুলে ধরেছিলেন। সূত্রের খবর, ২৫জন চিনা প্রতিনিধি এক এক করে পাক মন্ত্রীর কাছে নালিশ করেন। তখনই চিনের প্রতিনিধিরা জানিয়ে দেন, বকেয়া টাকা না মেটালে পাওয়ার প্ল্যান্ট কিছুদিনের মধ্যে বন্ধ করে দেওয়া হবে।

এদিকে চিনের হুঁশিয়ারি শুনে কার্যত বেকায়দায় পাক আধিকারিকরা। এই গরমে যদি পাওয়ার প্ল্যান্ট বন্ধ করে দেয় তবে ভয়াবহ বিপদ হতে পারে। তবে চিনের কোম্পানিগুলির দাবি, টাকার ব্যাপার, সেক্ষেত্রে এদিক ওদিক করা সম্ভব নয়। তবে পাকিস্তানের তরফে তাদের আশ্বাস দেওয়া হয়েছে। 

বন্ধ করুন