বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > Man accused of unnatural sex: অপ্রাকৃতিক সঙ্গম, যৌনদাস বানিয়ে রাখার অভিযোগ দম্পতির বিরুদ্ধে! সরব পড়ুয়া, গ্রেফতার ১

Man accused of unnatural sex: অপ্রাকৃতিক সঙ্গম, যৌনদাস বানিয়ে রাখার অভিযোগ দম্পতির বিরুদ্ধে! সরব পড়ুয়া, গ্রেফতার ১

আইআইটি বম্বের ছাত্রের অভিযোগের ভিত্তিতে গ্রেফতার দম্পতি। (প্রতীকী ছবি)

মুম্বইয়ের পাওয়াই পুলিশ স্টেশনের তরফে জানানো হয়, ‘গ্রিন্ডার’ অ্যাপের মাধ্যমে অভিযুক্তের সঙ্গে পরিচিতি ঘটে ওই আইআইটি পড়ুয়ার। ওই আইআইটি পড়ুয়ার অভিযোগ ছিল যে, তাঁকে ওই দম্পতি কার্যত 'সেক্স স্লেভ' (যৌন দাস) বানিয়ে রেখে দেয়। ক্রমাগত চালিয়ে যাওয়া হত তার ওপর অপ্রাকৃতিক যৌন অত্যাচার।

অপ্রাকৃতিক যৌনতা,  ব্ল্যাক ম্যাজিক, হত্যার চেষ্টার অভিযোগে, এক মধ্য চল্লিশের ব্যক্তি ও তাঁর স্ত্রীয়ের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে মুম্বই পুলিশ। তাঁদের বিরুদ্ধে এই অভিযোগ তুলেছেন আইআইটি বম্বের এক পড়ুয়া। গত শনিবার দায়ের হওয়া এই মামলায় তদন্তে নেমেছে পুলিশ। গ্রেফতার হয়েছেন ১ অভিযুক্ত।

মুম্বইয়ের পাওয়াই পুলিশ স্টেশনের তরফে জানানো হয়, ‘গ্রিন্ডার’ অ্যাপের মাধ্যমে অভিযুক্তের সঙ্গে পরিচিতি ঘটে ওই আইআইটি পড়ুয়ার। উল্লেখ্য, সমকামী প্রেমে বিশ্বাসী ব্যক্তিত্বদের মধ্যে এই বিশেষ অ্যাপ বেশ জনপ্রিয়। ওই আইআইটি পড়ুয়ার অভিযোগ ছিল যে, তাঁকে ওই দম্পতি কার্যত 'সেক্স স্লেভ' (যৌনদাস) বানিয়ে রেখে দেয়। ক্রমাগত চালিয়ে যাওয়া হত তার ওপর অপ্রাকৃতিক যৌন অত্যাচার। উল্লেখ্য, অভিযোগ পাওয়াই পুলিশ স্টেশনের কাছে আসে গত শনিবার। আর এক সপ্তাহের মধ্যে অভিযুক্ত দম্পতিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। অভিযুক্তদের স্থানীয় কোর্টে তোলা হয়েছে। তাঁদের পুলিশ হেফাজতের দাবি করা হয়েছে। প্রসঙ্গত, পুলিশ খোঁজ করছে এই গোটা অপরাধের অভিযোগে ওই ব্যক্তির স্ত্রীর কী ভূমিকা ছিল, তা নিয়ে। জানা গিয়েছে, ইউরোপের এক সংস্থায় কর্মরত ছিলেন ওই অভিযুক্ত ব্যক্তি। যখন তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হয়, তখন তিনি দেশের বাইরে ছিলেন। তিনি দেশে ফিরতেই তাঁকে আটক করা হয়। তারপর তাঁকে গ্রেফতার করা হয়। (লিভ ইন সম্পর্কে মহিলারা কতটা নিরাপদ এদেশে? NCW প্রধান দিলেন অভিভাবকদের বার্তা)

আইআইটি পড়ুয়ার অভিযোগ ছিল, তাঁর সঙ্গে বহু তন্ত্রমন্ত্র করা হত। আর তা করেই তাঁকে অপ্রাকৃতিকভাবে যৌন সঙ্গমে বাধ্য করা হত। এমনকি তাঁকে যৌন দাস বানিয় রেখে দেওয়া হয়, বলে অভিযোগ ওই ছাত্রের। এই ঘটনার পর পুলিশি তদন্তে কী কী উঠে এসেছে, তার দিকে নজর গোটা দেশের। ঘটনার জেরে আইআইটি বম্বেতেও ছড়িয়েছে চাঞ্চল্য।

এই খবরটি আপনি পড়তে পারেন HT App থেকেও। এবার HT App বাংলায়। HT App ডাউনলোড করার লিঙ্ক https://htipad.onelink.me/277p/p7me4aup

 

 

 

 

 

 

 

 

 

বন্ধ করুন