ফাইল ছবি
ফাইল ছবি

বাংলাদেশে ফিরতে চাইছে বেআইনি অনুপ্রেবশকারীরা, কমছে গরু পাচার- বিএসএফ

গত এক মাসে এই প্রবণতা দেখেছে বিএসএফ।

বেআইনি অনুপ্রবেশকারীদের মধ্যে ভারত ছেড়ে বাংলাদেশের পথে পাড়ি দেওয়ার প্রবণতা বেড়েছে বলে জানাল বিএসএফ। গত এক মাসের তথ্যের ভিত্তিতে এই কথা জানিয়েছে সীমান্তরক্ষা বাহিনী। বিএসএফের দক্ষিণবঙ্গের ফ্রন্টিয়ার ওয়াইবি খুরানিয়া শুক্রবার কলকাতায় এই কথা জানিয়েছেন।

একেবারে বাংলাদেশ যাওয়ার হিড়িক না পড়লেও অনেকেই নিজেদের ঘরের দিকে পাড়ি দিচ্ছে বলে জানিয়েছেন বিএসএফ কর্তা। জানুয়ারি মাসেই ইতিমধ্যে ২৬৮ জন বাংলাদেশিকে ধরেছে বিএসএফ। এরমধ্যে ৯০ শতাংশ ভারত থেকে বাংলাদেশে যেতে গিয়ে সীমান্তে ধরা পড়েছে। একই সঙ্গে গরু পাচারের সংখ্যা আগের থেকে কমেছে বলেও জানান খুরানিয়া।

২০১৮ সালে তার আগের বছরের তুলনায় প্রায় ৫০ শতাংশ বেড়েছে বেআইনি অনুপ্রবেশ করতে গিয়ে ধরা পড়া ব্যাক্তির সংখ্যা। এদের মধ্যে অধিকাংশই মহিলা ও শিশু। কেন্দ্র শীতকালীন অধিবেশনে নাগরিকত্ব আইন পাশ করার পর থেকেই জনমানসে একটা ধারণা হয়েছে যে এর পরেই হয়তো নাগরিকপঞ্জী অর্থাত্ এনআরসি-র কাজ শুরু হয়ে যাবে। এর ফলে যারা বেআইনি ভাবে দেশে এসে থাকছেন তাদের সহজেই চিহ্নিত করা যাবে। যদিও বিরোধীদের দাবি, দেশের নাগরিক যারা তাদেরও অনেকাংশে অসুবিধা হবে সিএএ ও এনআরসি চালু হয়ে গেলে।

সরকারের তরফ থেকে অভয় দেওয়া হয়েছে যে আপাতত এনআরসি চালু করার কোনও পরিকল্পনা নেই, সেটি নিয়ে মন্ত্রীসভায় কোনও আলোচনা পর্যন্ত হয়নি, বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।



বন্ধ করুন