বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > গিলানির মৃত্যুর পরে হুরিয়তের নয়া চেয়ারম্যান জেলবন্দি নেতা
কিছুদিন আগেই মৃত্যু হয়েছিল বিচ্ছিন্নতাবাদী নেতা গিলানির  (HT File) (ফাইল ছবি)
কিছুদিন আগেই মৃত্যু হয়েছিল বিচ্ছিন্নতাবাদী নেতা গিলানির  (HT File) (ফাইল ছবি)

গিলানির মৃত্যুর পরে হুরিয়তের নয়া চেয়ারম্যান জেলবন্দি নেতা

  • বিচ্ছিন্নতাবাদী নেতা সৈয়দ আলি গিলানির মৃত্যুর ৬দিনের মাথায় চেয়ারম্যানের পদ দেওয়া হল আলম ভাটকে।

জেলবন্দি মাসারত আলম ভাটকে অল পার্টি হুরিয়ত কনফারেন্সের চেয়ারম্যান নিযুক্ত করা হল। কাশ্মীরের বিচ্ছিন্নতাবাদী নেতা সৈয়দ আলি গিলানির মৃত্যুর ৬দিনের মাথায় চেয়ারম্যানের পদ দেওয়া হল আলম ভাটকে। প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এমনটাই জানানো হয়েছে। বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে মেইল করে একথা জানানো হয়েছে। বিবৃতিতে দাবি করা হয়েছে শ্রীনগরে মিটিং করে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

পাশাপাশি গ্রেফতার এড়ানোর জন্য নানা কৌশল নেওয়া হচ্ছে বলেও সংগঠনে তরফে জানানো হয়েছে। বিবৃতিতে জানানো হয়েছে মাসারত আলম ভাটকে অল পার্টি হুরিয়ত কনফারেন্সের পরবর্তী চেয়ারম্যান হিসাবে নিযুক্ত করা হয়েছে। সাবির আহমেদ শাহ ও গুলাম আহমেদ গুলজারকে ভাইস চেয়ারম্যান হিসাবে নিযুক্ত করা হয়েছে। চেয়ারম্যানের নির্দেশ মেনে গুলজার সংগঠনের রোজকার কাজকর্ম পরিচালনা করবেন। 

এদিকে গিলানির হাত ধরেই তৈরি হয়েছিল এই সংগঠন। কিন্তু ২০২০ সালের ২৯শে জুন থেকে কার্যত অভিভাবক শূন্য হয়ে পড়েছিল এই সংগঠন। সংযুক্ত সংগঠন থেকে নিজেকে সরিয়ে নেওয়ার কথাও ঘোষনা করেছিলেন গিলানি। এদিকে ৪৯ বছর বয়সী আলম ভাট বর্তমানে তিহার জেলে বন্দি রয়েছে। এনআইএর অভিযোগের ভিত্তিতে ২০১৯ সাল থেকেই তিনি জেলে রয়েছেন। সাবির শাহও বর্তমানে জেলে রয়েছেন।  ২০১০ সালের পর থেকে বেশিরভাগ সময় জেলেই কাটিয়েছেন আলম ভাট।

 

জেলবন্দি মাসারত আলম ভাটকে অল পার্টি হুরিয়ত কনফারেন্সের চেয়ারম্যান নিযুক্ত করা হল। বিচ্ছিন্নতাবাদী নেতা সৈয়দ আলি গিলানির মৃত্যুর ৬দিনের মাথায় চেয়ারম্যানের পদ দেওয়া হল আলম ভাটকে। প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এমনটাই জানানো হয়েছে। বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে মেইল করে একথা জানানো হয়েছে। বিবৃতিতে দাবি করা হয়েছে শ্রীনগরে মিটিং করে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

পাশাপাশি গ্রেফতার এড়ানোর জন্য নানা কৌশল নেওয়া হচ্ছে বলেও সংগঠনে তরফে জানানো হয়েছে। বিবৃতিতে জানানো হয়েছে মাসারত আলম ভাটকে অল পার্টি হুরিয়ত কনফারেন্সের পরবর্তী চেয়ারম্যান হিসাবে নিযুক্ত করা হয়েছে। সাবির আহমেদ শাহ ও গুলাম আহমেদ গুলজারকে ভাইস চেয়ারম্যান হিসাবে নিযুক্ত করা হয়েছে। চেয়ারম্যানের নির্দেশ মেনে গুলজার সংগঠনের রোজকার কাজকর্ম পরিচালনা করবেন। 

এদিকে গিলানির হাত ধরেই তৈরি হয়েছিল এই সংগঠন। কিন্তু ২০২০ সালের ২৯শে জুন থেকে কার্যত অভিভাবক শূন্য হয়ে পড়েছিল এই সংগঠন। সংযুক্ত সংগঠন থেকে নিজেকে সরিয়ে নেওয়ার কথাও ঘোষনা করেছিলেন গিলানি। এদিকে আলম ভাট বর্তমানে তিহার জেলে বন্দি রয়েছেন। এনআইএর অভিযোগের ভিত্তিতে ২০১৯ সাল থেকেই তিনি জেলে রয়েছেন। সাবির শাহও বর্তমানে জেলে রয়েছেন। তবে ২০১০ সালের পর থেকে বেশিরভাগ সময় জেলেই কাটিয়েছেন আলম ভাট।

 

 

|#+|

 

 

 

 

 

 

 

  

বন্ধ করুন