বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > প্রতি ১৬ মিনিটে ধর্ষণ হয় ভারতে, উঠে এল NCRB পরিসংখ্যানে

উত্তরপ্রদেশে একের পর এক ধর্ষণের ঘটনায় গর্জে উঠেছে গোটা দেশ। হাথরাসের পর থেমে নেই ধর্ষণের ঘটনা। পরপর বলরামপুর, বুলন্দশহর এবং ভাদোহী এলাকায় ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। তাতে প্রশ্ন উঠে গিয়েছে যোগীর রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা নিয়ে। এবার তারই মধ্যে উঠে এল এক চাঞ্চল্যকর রিপোর্ট।

দ্য ন্যাশনাল ক্রাইম রেকর্ড ব্যুরো একটি রিপোর্ট পেশ করেছে। সেই রিপোর্ট অনুযায়ী, এই দেশে প্রতি ১৬ মিনিটে অন্তত একজন মেয়ে ধর্ষিতা হয়। যা রীতিমতো চাঞ্চল্যকর। প্রতি ঘন্টায় একটি মেয়েকে পণের জন্য খুন হতে হয়। গোটা দেশ যখন উত্তাল, তখন এই রিপোর্ট দেশবাসীর ক্ষোভের আগুনে ঘৃতাহুতি দেবে বলে মনে করা হচ্ছে। একইসঙ্গে প্রশ্ন উঠে যাচ্ছে, বেটি বাঁচাও, বেটি পড়াও উদ্যোগ নিয়ে।

কলকাতায় প্রতিবাদ
কলকাতায় প্রতিবাদ (PTI)

এনসিবি’‌র এই রিপোর্ট জানাচ্ছে, প্রতি চার মিনিটে এই দেশে একটি মেয়ে তাঁর শ্বশুরবাড়ির লোক অথবা স্বামীর হাতে নির্যাতিতা, লাঞ্ছিতা হন। প্রতি দু’‌দিনে একজন মেয়ের উপর অ্যাসিড আক্রমণ হয়। প্রতি ৩০ ঘন্টায় ভারতে অন্তত একজন মেয়ে গণধর্ষণের শিকার হয়। আর প্রতি দু’‌ঘণ্টায় অন্তত একটি মেয়েকে ধর্ষণের চেষ্টা করা হয়। প্রতি ৬ মিনিটে একটি মেয়েকে যৌন হেনস্থা করার চেষ্টা করা হয়। এই রিপোর্ট প্রকাশ্যে আসায় দেশের ভাবমূর্তি যে উজ্জ্বল হচ্ছে না তা প্রমাণিত।

এই রিপোর্টে নারী পাচার নিয়ে বলা হয়েছে, ভারতে প্রতি চার ঘন্টায় অন্তত একটি মেয়ে পাচার হয়ে যায়। সুতরাং গোটা দেশে নারী সুরক্ষা এখন প্রশ্নের মুখে। তার মধ্যে উত্তরপ্রদেশ নারী নির্যাতনে শীর্ষস্থান অধিকার করেছে। 

 

বন্ধ করুন