বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > পূর্ব লাদাখ থেকে সেনা প্রত্যাহারে সম্মত ভারত ও চিন
পূর্ব লাদাখে সেনা প্রত্যাহারের বিষয়ে সম্মত হল ভারতীয় সেনাবাহিনী ও চিনের পিপলস লিবারেশন আর্মি।
পূর্ব লাদাখে সেনা প্রত্যাহারের বিষয়ে সম্মত হল ভারতীয় সেনাবাহিনী ও চিনের পিপলস লিবারেশন আর্মি।

পূর্ব লাদাখ থেকে সেনা প্রত্যাহারে সম্মত ভারত ও চিন

  • পূর্ব লাদাখে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখার অন্তর্গত একাধিক সংঘর্ষস্থানে সেনা প্রত্যাহারের বিষয়ে সম্মত হল ভারতীয় সেনাবাহিনী ও চিনের পিপলস লিবারেশন আর্মি।

পূর্ব লাদাখে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখার অন্তর্গত একাধিক সংঘর্ষস্থানে সেনা প্রত্যাহারের বিষয়ে সম্মত হল ভারতীয় সেনাবাহিনী ও চিনের পিপলস লিবারেশন আর্মি (PLA)। রবিবার দুই পক্ষের নবম আলোচনা পর্বে এই সিদ্ধান্ত হয়েছে।

বৈঠকের পরে প্রকাশিত যৌথ বিবৃতিতে দুই সেনাবাহিনীর তরফে জানানো হয়েছে, ‘দুই পক্ষই তাদের রাষ্ট্রীয় নেতাদের সমঝোতার গুরুত্বপূর্ণ দিকগুলি অনুসরণ করবে, পারস্পরিক সুসম্পর্ক ও আপস মেনে চলবে এবং যত তাড়াতাড়ি সম্ভব সেনা প্রত্যাহারের বিষয়ে কর্পস কম্যান্ডার স্তরে দশম সামরিক বৈঠক আয়োজন করবে।’

প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখায় স্থিতি বজায় রাখতে চিনা ভূখণ্ডের মলডোতে নবম সামরিক বৈঠকে অংশগ্রহণ করেন ভারত ও চিনের শীর্ষস্থানীয় সামরিক আধিকারিকরা। যৌথ বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘দুই পক্ষই সীমান্তে সামরিক উদ্যোগে সংযম প্রদর্শন, প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখা সংলগ্ন অঞ্চলে স্থিতি ও পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখা এবং যৌথ উদ্যোগে শান্তি বজায় রাখার বিষয়ে উদ্যোগী হবে।’

বিবৃতিতে দাবি করা হয়েছে, ‘আলোচনায় দুই পক্ষই খোলা মনে গভীর মত বিনিময়ে পারস্পরিক সৌহার্দ্য বজায় রেখেছে। এই পর্বের বৈঠক ফলপ্রসূ, সদর্থক, বাস্তবোচিত এবং গঠনমূলক হয়েছে। এর ফলে পারস্পরিক আস্থা ও বোঝাপড়ার বিকাশ ঘটেছে।’

জানা গিয়েছে, নবম দফার বৈঠক গড়িয়েছে ১৬ ঘণ্টা পর্যন্ত। এর আগে ২০২০ সালের ৬ নভেম্বর ভারত ও চিনের শীর্ষস্থানীয় সামরিক কর্তারা অষ্টম পর্বের আলোচনায় বসেছিলেন।

বন্ধ করুন