বাড়ি > ঘরে বাইরে > মেজর জেনারেল পর্যায়ের বৈঠকে ভারত-চিন, পূর্ব ও মধ্য সেক্টরে সতর্কতার নির্দেশ সেনাপ্রধানের
লাদাখ সেক্টরে মেজর জেনারেল পর্যায়ের বৈঠকে ভারত-চিন (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য এএনআই)
লাদাখ সেক্টরে মেজর জেনারেল পর্যায়ের বৈঠকে ভারত-চিন (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য এএনআই)

মেজর জেনারেল পর্যায়ের বৈঠকে ভারত-চিন, পূর্ব ও মধ্য সেক্টরে সতর্কতার নির্দেশ সেনাপ্রধানের

  • আধিকারিকরা জানিয়েছেন, ডেসপ্যাং এলাকার পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনাও হবে।

রাহুল সিং

পিপলস লিবারেশন অফ আর্মির (পিএলএ) ফৌজি সরানোর প্রক্রিয়া নিয়ে শনিবার মেজর জেনারেল পর্যায়ের বৈঠকে বসেছে ভারত ও চিন। লাদাখ সেক্টরে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখা বরাবর দৌলত বেগ ওল্ডি এলাকায় সেই বৈঠক হচ্ছে। আধিকারিকরা জানিয়েছেন, সকাল ১১ টা থেকে শুরু হয়েছে বৈঠক। ডেসপ্যাং এলাকার পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনাও হবে।

তারইমধ্যে পূর্ব ও মধ্য সেক্টরে সুরক্ষা ব্যবস্থা পর্যালোচনার সময়ে যে কোনও ঘটনার জন্য ভারতীয় সেনার উচ্চপদস্থ কমান্ডারদের প্রস্তুত থাকার নির্দেশ দিয়েছেন সেনাপ্রধান জেনারেল মনোজ মুকুন্দ নারাভানে। শুক্রবার এমনটাই জানিয়েছেন বিষয়টির সঙ্গে অবহিত আধিকারিকরা। সীমান্ত উত্তেজনার জন্য পূর্ব লাদাখ সেক্টরে বাড়তি জোর দেওয়া হলেও হিমাচল প্রদেশ, উত্তরাখণ্ড, সিকিম এবং অরুণাচল প্রদেশের চিন সীমান্তেও চূড়ান্ত সতর্ক রয়েছে ভারতীয় সেনা।

ওই আধিকারিকরা জানিয়েছেন, বৃহস্পতিবার তেজপুর এবং শুক্রবার লখনউ সফরে পূর্ব ও মধ্য সেক্টরে সেনার সুরক্ষা পরিস্থিতি, কত জওয়ান মোতায়েন আছেন এবং সেনার  প্রস্তুতির বিষয়ে জেনারেল নারাভানেকে খুঁটিনাটি জানান উচ্চপদস্থ কমান্ডাররা। চিনের সঙ্গে ১,৫৬৩ কিলোমিটারের দৈর্ঘ্যের সীমান্তের দায়িত্বে আছে তেজপুরের গজরাজ কর্পস।

ভারতীয় সেনার প্রাক্তন উপপ্রধান লেফটেন্যান্ট জেনারেল এ এস লাম্বা (অবসরপ্রাপ্ত) জানিয়েছেন, পূর্ব সেক্টরে চিনের প্ররোচনা ক্রমশ বাড়ছে। তাই সেখানে চূড়ান্ত প্রস্তুত থাকার বিষয়টি নিশ্চিত করার অঙ্গ হিসেবে দু'দিনের সফরে গিয়েছিলেন সেনাপ্রধান। তিনি বলেন, ‘গত বছর অরুণাচল প্রদেশে (ভারতীয়) সেনার মহড়া হিম বিজয়ে চিনের আপত্তি এবং ভুটানের ভূখণ্ড চিনের দাবি অত্যন্ত সংবেদনশীল এবং গুরুত্বপূর্ণ বিষয়।’

বন্ধ করুন