বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > করোনার নয়া প্রজাতির জেরে ৩১ ডিসেম্বর অবধি ব্রিটেন থেকে ফ্লাইট বন্ধ করল ভারত
বরিস জনসন (REUTERS)
বরিস জনসন (REUTERS)

করোনার নয়া প্রজাতির জেরে ৩১ ডিসেম্বর অবধি ব্রিটেন থেকে ফ্লাইট বন্ধ করল ভারত

  • অনেক দেশ ইতিমধ্যেই ব্রিটেন থেকে ফ্লাইট বন্ধ করেছে। 

রূপ বদল করেছে করোনাভাইরাস। ৭০ শতাংশ বেশি সংক্রামক ভাইরাস এখন ছেয়ে গিয়েছে ব্রিটেন। এর জেরেই লন্ডন সহ ব্রিটেনের বিস্তৃত অঞ্চলে ফের শুরু হয়েছে লকডাউন। এবার অন্য দেশের মতো ব্রিটেন থেকে আসা ফ্লাইট বন্ধ করল ভারত। 

এদিন কেন্দ্রীয় সরকারের পক্ষ থেকে জানান হয়েছে যে ইউনাইটেড কিংডমে বর্তমানে যে পরিস্থিতি, তার জেরে অস্থায়ী ভাবে ফ্লাইট বন্ধ রাখা হবে। এই সিদ্ধান্ত ২৩ ডিসেম্বর থেকে ৩১ ডিসেম্বর অবধি আপাতত কার্যকর হবে। যারা ২২ তারিখ রাত ১১.৫৯-এর মধ্যে ব্রিটেন থেকে ভারতে আসবেন, তাদের বিমানবন্দরে বাধ্যতামূলক করোনা পরীক্ষা করা হবে। স্বাস্থ্য মন্ত্রকের জয়েন্ট মনিটারিং গ্রুপের বৈঠকের পর এই সিদ্ধান্তের কথা জানাল অসামরিক বিমান পরিবহণ মন্ত্রক। 

৩১ তারিখের পর অবস্থা বুঝে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছে কেন্দ্র। প্রসঙ্গত বিভিন্ন দেশের সঙ্গে ট্র্যাভেল বাবল করে বর্তমানে আন্তর্জাতিক বিমান পরিষেবা চলছে। পুরোদস্তুর পরিষেবা এখনও চালু হয়নি। তার মধ্যেই ব্রিটেনে সংক্রমণের নয়া আতঙ্ক ছড়ানোয় আপাতত সেই দেশের সঙ্গে যাতায়াত বন্ধ করল ভারত। 

তবে করোনার নয়া রকমভেদ নিয়ে এখনও উদ্বিগ্ন হওয়ার কোনও কারণ নেই বলে জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষবর্ধন। তিনি জানান, ব্রিটেনে নয়া চরিত্রের করোনাভাইরাস নিয়ে 'সতর্ক' আছে কেন্দ্র। কিন্তু তা নিয়ে দেশবাসীদের আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই। তাঁর কথায়, ‘কাল্পনিক পরিস্থিতি এবং ব্যাখ্যা নিয়ে আতঙ্কিত হওয়ার কোনও প্রয়োজন নেই। আমার মনে হয় না, এখানে এমন পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে, যাতে আতঙ্কিত হওয়ার বিষয় আছে। তবে আপনাদের এটাও জানাতে চাই যে প্রতিটি বিষয়ের উপর কড়া নজর রাখছেন আমাদের বিজ্ঞানীরা’। তবে যেভাবে ব্রিটেনের পর অন্য দেশ থেকেও এই ভাইরাস স্ট্রেনের খবর মিলেছে, সেখানে স্বাভাবিক ভাবেই ঝুঁকি নিতে চায়নি ভারত। 

 

বন্ধ করুন