মহ্গলবার কাবুলের প্রসূতি হাসপাতালে সন্ত্রাসবাদী হামলার পরে সদ্যোজাত শিশুকে নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন আফগান সেনাবাহিনীর অফিসার। ছবি: এপি। (AP)
মহ্গলবার কাবুলের প্রসূতি হাসপাতালে সন্ত্রাসবাদী হামলার পরে সদ্যোজাত শিশুকে নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন আফগান সেনাবাহিনীর অফিসার। ছবি: এপি। (AP)

কাবুলে প্রসূতি হাসপাতালে নাশকতায় পাকিস্তানকে দূষল দিল্লি, দায় নিল না তালিবান

  • আফগানিস্তানে শান্তি ও স্থিতি ফিরিয়ে আনতে সে দেশের সরকার, নাগরিক ও সেনাবাহিনীর পাশে রয়েছে ভারত।

কাবুলে প্রসূতি হাসপাতালে একাধিক সন্ত্রাসবাদী হামলার বিরুদ্ধে তূব্র প্রতিবাদ জানাল ভারত। ঘটনায় অভিযোগের আঙুল উঠেছে পাকিস্তানে ঘাঁটি গাড়া সন্ত্রাসবাদী সংগঠনগুলির দিকে।

মঙ্গলবার আফগানিস্তানের রাজধানীর দস্ত-এ-বার্চি এলাকার ওই হাসপাতালে হামলায় মারা গিয়েছে দুই সদ্যোজাত সহ কমপক্ষে ১২ জন। ঘটনার জেরে আত্মরক্ষামূলক অবস্থান ছেড়ে তালিবানদের বিরুদ্ধে আক্রমণাত্মক পদক্ষেপের নির্দেশ দিয়েছেন আফগান প্রেোসিডেন্ট আশরফ ঘানি। 

ভারতীয় বিদেশ মন্ত্রকের তরফে বিবৃতিতে ঘটনার নিন্দা করে বলা হয়েচে, ‘শিশু ও মহিলা-সহ নিরপরাধ নাগরিকদের উপরে দস্ত-ই-বার্চির হাসপাতালে এই বর্বরোচিত আক্রমণের তীব্র নিন্দা করছে ভারত। সেই সঙ্গে নাঙ্গারঘর প্রদেশের অন্ত্যেষ্টি যাত্রা এবং লঘমন প্রদেশে সেনা চেকপয়েন্টের হামলারও সমালোচনা করা হচ্ছে।’

নামোল্লেখ না করেএ পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ওই বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘ওই সমস্ত হামলার পিছনে থাকা ষড়যন্ত্রীদের আফগানিস্তানের এযাবত নিরাপদ অঞ্চল ছাড়তে বাধ্য করা দরকার এবং কয়েক দশক ধরে ওই সব অঞ্চলে সন্ত্রাস চালিয়ে যাওয়া ও তার জেরে নাগরিকদের উপরে অসীম ক্লেশ তৈরি করার জন্য তাদের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ প্রয়োজন।’

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, এই চরম সংকটকালে আফগানিস্তানে শান্তি ও স্থিতি ফিরিয়ে আনতে সে দেশের সরকার, নাগরিক ও সেনাবাহিনীর পাশে রয়েছে ভারত। 

তবে মঙ্গলবার হাসপাতালের উপরে হামলার দায় অস্বীকার করেছে তালিবান গোষ্ঠী। ঘটনায় মারা গিয়েছে ৪ আত্মঘাতী জঙ্গিও। আফগান নিরাপত্তাবাহিনী ৪০ জনকে উদ্ধার করতে সক্ষম হয়েছে। 

বন্ধ করুন