বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > করোনায় আমেরিকাকে টপকে সুস্থতার নয়া রেকর্ড গড়ল ভারত
ফাইল চিত্র (PTI)
ফাইল চিত্র (PTI)

করোনায় আমেরিকাকে টপকে সুস্থতার নয়া রেকর্ড গড়ল ভারত

  • সবচেয়ে বেশি করোনা আক্রান্ত মানুষ সুস্থ হয়ে উঠেছেন ভারতে। 

বহুদিন ধরেই সরকার বলে আসছে যে করোনার কেস বাড়লে কি হবে, পাল্লা দিয়ে বাড়ছে সুস্থ হয়ে যাওয়া রোগীর সংখ্যাও। এবার সুস্থতার সংখ্যায় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রকে অতিক্রম করে বিশ্বে পয়লা নম্বর স্থান দখল করল ভারত। 

শনিবার সকালে প্রকাশিত তথ্য অনুযায়ী, করোনা পজিটিভ অবস্থা থেকে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৪২০৮৪৩১ জন ভারতীয়। আমেরিকার ক্ষেত্রে এই সংখ্যাটি হল ৪১৯২৭৭৪। তৃতীয় স্থানে ব্রাজিল, সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৩৭৮৯১৩৯। প্রসঙ্গত, আমেরিকায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা কিন্তু ভারতের থেকে অনেক বেশি। ১৬ লাখের ওপর বেশি কেস হলেও আমেরিকায় সুস্থ হয়ে ওঠা রোগীর সংখ্যা ভারতের থেকে কম। এতেই প্রমাণ খুব দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠছেন ভারতের করোনা আক্রান্তরা। এই মুহূর্তে সারা বিশ্বে মোট করোনা থেকে সুস্থ হয়ে ওঠা রোগীর ১৮.৮৩ শতাংশ ভারতের, ১৮.৭৭ শতাংশ আমেরিকার। 

শুক্রবার সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৯৫৮৮০ জন, যেটি নয়া কেসের সংখ্যার থেকে বেশি। ফলে অ্যাক্টিভ কেস কমেছে তিন হাজারের বেশি। স্বাস্থ্যমন্ত্রকের মতে যেভাবে সারা দেশে তারা করোনা চিকিৎসার একটি স্ট্যান্ডারডাইজড ব্যবস্থা করেছেন ও প্লাজমা, রেমডিসিভিরের ব্যবহারের অনুমতি দিয়েছেন, তার ফলে কিছুটা বেড়েছে সুস্থতার হার। 

বিভিন্ন আধুনিক উপায় যেগুলি বিশ্বের অন্যত্র কাজে এসেছে, সেগুলিকে ব্যবহার করে সুস্থতার সংখ্যা বৃদ্ধি করা হয়েছে বলে মন্ত্রকের দাবি। যাদের উপসর্গ তেমন নেই, তাদের নজরদারির সঙ্গে বাড়িতে রাখা, উন্নততর অ্যাম্বুলেন্স পরিষেবা যাতে দ্রুত রোগীকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া যায়, তাতেও লাভ হয়েছে বলে স্বাস্থ্যমন্ত্রকের দাবি। 

ডাক্রাররা যেভাবে টেলি কলসালটেশন করছেন তাতে করোনা নিয়ে জনসচেতনা বেড়েছে বলে মন্ত্রকের দাবি। এই মুহূর্তে ভারতে করোনার মৃত্যুহার ১.৬১ শতাংশ, যা বিশ্ব গড়, যেটি ৩.১ শতাংশ, তার থেকে অনেক কম। স্বাস্থ্যপরিষেবা নিয়ে রাজ্যগুলির সঙ্গে নিয়মিত রিভিউ করা হচ্ছে বলে জানিয়েছে কেন্দ্র।

বন্ধ করুন