বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > 'গ্লোবাল ওয়ার্মিং'-এর জেরে ৩ শতাংশ জিডিপি হারিয়েছে ভারত!
ছবিটি প্রতীকী 
ছবিটি প্রতীকী 

'গ্লোবাল ওয়ার্মিং'-এর জেরে ৩ শতাংশ জিডিপি হারিয়েছে ভারত!

  • বৈশ্বিক উষ্ণায়নের প্রভাবে ভবিষ্যতে ভারত নিজেদের জিডিপির ১০ শতাংশ পর্যন্ত হারাতে পারে।

করোনা অতিমারীর আগে থেকেই নিম্নমুখী ছিল ভারতীয় অর্থনীতির গ্রাফ। এরপর করোনা সংক্রমণের ধাক্কায় সেই গ্রাভ অতল গহ্বরে নেমে যায়। যদিও পরবর্তীতে ফের সেই ধস থেকে ঘুরে দাঁড়াচ্ছে ভারত। তবে এতকিছুর মাঝেও ভারতের অর্থনীতির হ্রাসের অন্যতম মূল কারণকে খুব একটা পাত্তা দেওয়া হয় না। গ্লোবাল ওয়ার্মিং বা বৈশ্বিক উষ্ণায়ন। এই কারণে ভারতের গড় তাপমাত্রা বেড়েছে ১ ডিগ্রি, যার জেরে ভারত ৩ শতাংশ জিডিপি হারিয়ে থাকতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করল লন্ডনের এক থিঙ্কট্যাঙ্ক।

ODI নামক এই থিঙ্কট্যাঙ্কের আরও আশঙ্কা, ভবিষ্যতে বৈশ্বিক উষ্ণায়ন আরও বৃদ্ধি পেলে ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস বাড়তে পারে তাপমাত্রা। যার প্রভাবে ভারত নিজেদের জিডিপির ১০ শতাংশ হারাতে পারে। সমুদ্রের জলস্তর বৃদ্ধি, কৃষিপণ্য ফলন কম হওয়া, স্বাস্থ্য খাতে বেশি খরচ সহ একাধিক কারণ দেখা দিতে পারে বৈশ্বিক উষ্ণায়নের জেরে। যা সরাসরি প্রভাব ফেলবে দেশের অর্থনীতির উপর।

অক্সফোর্ড ইকনমিক্সের দ্বারা প্রকাশিত একটি গবেষণাপত্রে দাবি করা হয়েছে যে গ্লোবাল ওয়ার্মিংয়ের জন্য যদি ভারতকে বেশি খরচ করতে না হত, তাহলে ভারতের জিডিপি ২৫ শতাংশ বেশি হতে পারত। এই বিষয়ে গবেষক অ্যাঞ্জেলা পিসিয়ারিয়েলো বলেন, 'ইতিমধ্যেই ভারত বৈশ্কি উষ্ণায়নের প্রভাব অনুভব করছে। ২০২০ সালে ভারতের বহু শহরের তাপমাত্রা ৪৮ ডিগ্রি সেলসিয়াসকে ছাড়িয়ে গিয়েছে। কয়েক কোটি মানুষ জল সংকটে ভুগছে। এরম চলতে থাকলে অর্থনীতির উপর আরও চাপ পড়বে।'

তথ্য বলছে, ১৯৮৫ এবং ২০০৯ সালের মধ্যে ভারতে ৫০ শতাংষ হিটওয়েভের সংখ্যা বেড়েছে। গত ১০০ বছরে দেশের গড় তাপমাত্রা বেড়েছে ০.৬২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এসব জলবায়ু পরিবর্তনের জেরে প্রভাব পড়েছে ভারতীয় অর্থনীতির উপর।

বন্ধ করুন