বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ভারতের একজন দুর্বল প্রধানমন্ত্রী ও খিচুড়ি সরকার দরকার, কেন এমন বলছেন মিম প্রধান
আসাদউদ্দিন ওয়াইসি, মিম প্রধান (ANI Photo)

ভারতের একজন দুর্বল প্রধানমন্ত্রী ও খিচুড়ি সরকার দরকার, কেন এমন বলছেন মিম প্রধান

  • মিম প্রধান বলেন, নীতিশ কুমার ২০০২ সালের গুজরাত দাঙ্গার সময় বিজেপির হাত ধরেছিলেন। তখন গেরুয়ার সহযোগিতায় তিনি সরকার তৈরি করলেন আর এখন সেই বিজেপিকে ছেড়েই তিনি অন্য কারোর হাত ধরেছেন।

পরের লোকসভা নির্বাচনের পরে একজন দুর্বল প্রধানমন্ত্রী আর খিচুড়ি সরকার দরকার। এতে সমাজের দুর্বল শ্রেণি লাভবান হবে। জানালেন মিম প্রধান আসাদউদ্দিন ওয়াইসি।

সাংবাদিক বৈঠকে তিনি বলেন, শক্তিশালী প্রধানমন্ত্রী কেবলমাত্র শক্তিশালী লোকজনকে সহায়তা করেন। আম আদমি পার্টিকে আক্রমণ করে তাঁর দাবি, আপের সঙ্গে বিজেপির কোনও ফারাক নেই গুজরাতে। কারণ বিলকিস বানোর মামলায় অভিযুক্তদের মুক্তি নিয়ে তারাও নীরব।

আগামী ডিসেম্বর মাসে গুজরাতে বিধানসভা ভোট হওয়ার কথা রয়েছে। মিম সেই ভোটে প্রার্থী দিতে পারে। মিম প্রধান দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকেও নিশানা করেন। তিনি বলেন, জওহরলাল নেহেরুর পরে দ্বিতীয় শক্তিশালী প্রধানমন্ত্রী বেকারত্ব, দ্রব্যমূল্যবৃদ্ধি, চিনের আগ্রাসন, কর্পোরেট করের বৃদ্ধির কারন প্রসঙ্গে এখন সিস্টেমকে দোষারোপ করছেন।

মিম প্রধান বলেন, আমি বিশ্বাস করি ভারতের এখন একজন দুর্বল প্রধানমন্ত্রী দরকার। আমরা শক্তিশালী প্রধানমন্ত্রী দেখেছি। এখন আমাদের দুর্বল প্রধানমন্ত্রী দরকার যিনি দুর্বলদের সহায়তা করবেন। আর এর সঙ্গেই দরকার একজন খিচুড়ি সরকার যেটি রামধনু সরকার নামেও পরিচিত।

মিম প্রধান বলেন, নীতিশ কুমার ২০০২ সালের গুজরাত দাঙ্গার সময় বিজেপির হাত ধরেছিলেন। তখন গেরুয়ার সহযোগিতায় তিনি সরকার তৈরি করলেন আর এখন সেই বিজেপিকে ছেড়েই তিনি অন্য কারোর হাত ধরেছেন।

বন্ধ করুন