বাড়ি > ঘরে বাইরে > দিনে ৯৫,০০০ করোনা আক্রান্তে মোট কেস ছাড়াল ৪৭ লাখ, সুস্থতা বেড়ে ৭৮ শতাংশের কাছে
দিনে ৯৫,০০০ করোনা আক্রান্তে মোট কেস ছাড়াল ৪৭ লাখ, সুস্থতা বেড়ে ৭৮ শতাংশের কাছে (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)
দিনে ৯৫,০০০ করোনা আক্রান্তে মোট কেস ছাড়াল ৪৭ লাখ, সুস্থতা বেড়ে ৭৮ শতাংশের কাছে (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)

দিনে ৯৫,০০০ করোনা আক্রান্তে মোট কেস ছাড়াল ৪৭ লাখ, সুস্থতা বেড়ে ৭৮ শতাংশের কাছে

  • কেন্দ্র জানিয়েছে, ভারতে করোনায় সুস্থতার সংখ্যা খাড়াভাবে বাড়ছে। গত মে মাসে সুস্থ রোগীর সংখ্যা ছিল ৫০,০০০ হাজার।

ভারতে দৈনিক করোনাভাইরাস আক্রান্তের সংখ্যা আবারও ৯৫,০০০-এর কাছে পৌঁছে গেল। তার জেরে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৪৭ লাখের গণ্ডি ছাড়িয়ে গিয়েছে। সংক্রমিতের সংখ্যা বাড়লেও লাগাতার সুস্থতার সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ায় কিছুটা স্বস্তিতে রয়েছে কেন্দ্র।

নয়া পরিসংখ্যান অনুযায়ী, শনিবার সকাল আটটা থেকে রবিবার সকাল আটটা পর্যন্ত দেশে ৯৪,৩৭২ জন নয়া আক্রান্তের হদিশ মিলেছে। তার ফলে দেশে মোট করোনা সংক্রমিতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪,৭৫৪,৩৫৭। আর মৃত্যু হয়েছে মোট ৭৮,৫৮৬ জনের। তাঁদের মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা যুদ্ধে হেরে গিয়েছেন ১,১১৪ জন রোগী। অর্থাৎ মোট করোনা আক্রান্তের মধ্যে ১.৬৫ শতাংশ রোগীর মৃত্যু হয়েছে।

সেই পরিস্থিতির মধ্যে সুস্থতার হারে আশাপ্রকাশ করেছে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রক। রবিবার সকালে একটি বিবৃতিতে মন্ত্রকের তরফে জানানো হয়েছে, ভারতে করোনায় সুস্থতার সংখ্যা খাড়াভাবে বাড়ছে। গত মে মাসে সুস্থ রোগীর সংখ্যা ছিল ৫০,০০০ হাজার। চলতি মাসে সেই সংখ্যাটা ৩৭ লাখের গণ্ডি ছাড়িয়ে গিয়েছে। বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘সক্রিয় আক্রান্তের তুলনায় সুস্থ (রোগীর সংখ্যা) প্রায় ৩.৮ গুণ বেশি (মোট কেসের এক চতুর্থাংশ)।’

রবিবার সকালের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে ৭৮,৩৯৯ জন করোনা রোগী সুস্থ হয়ে উঠেছেন। ফলে সবমিলিয়ে ৩৭০,২৫৯৫ জন করোনাকে হারিয়ে দিয়েছেন। শতাংশের বিচারে যা ৭৭.৮৮ শতাংশ। স্বাস্থ্য মন্ত্রকের তরফে জানানো হয়েছে, শনিবার দেশে সুস্থতার দৈনিক রেকর্ড (৮১,৫৩৩) তৈরি হয়েছে। অন্যদিকে, সক্রিয় আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৯৭৩,১৭৫ বা ২০.৪৭ শতাংশ।

বন্ধ করুন