বাড়ি > ঘরে বাইরে > ভারতে করোনা আক্রান্ত ৫.৫ লাখের কাছে, সুস্থ ৩.২ লাখের বেশি
গ্রেটার নয়ডার একটি মলে থার্মাল স্ক্রিনিং (ছবি সৌজন্য এএনআই)
গ্রেটার নয়ডার একটি মলে থার্মাল স্ক্রিনিং (ছবি সৌজন্য এএনআই)

ভারতে করোনা আক্রান্ত ৫.৫ লাখের কাছে, সুস্থ ৩.২ লাখের বেশি

  • দেশে সুস্থতার হার বেড়ে হয়েছে ৫৮.৬৭ শতাংশ।

সোমবার ভারতে সামান্য কমল দৈনিক সুস্থতার সংখ্যা। একইসঙ্গে দৈনিক করোনাভাইরাস আক্রান্তের সংখ্যাও কিছুটা কমেছে। তবে তা ৫৫০,০০০ ছুঁইছুঁই।

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, সোমবার সকাল আটটা পর্যন্ত দেশে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৫৪৮,৩১৮। গত ২৪ ঘণ্টায় ১৯,৪৫৯ জন নয়া আক্রান্তের হদিশ পাওয়া গিয়েছে। রবিবার (শনিবার সকাল আটটা থেকে রবিবার সকাল আটটা) সেই সংখ্যাটা ছিল ১৯,৯০৬। তবে সংক্রমণের হার খুব একটা তেমন কমেনি। গত শনিবার সংক্রমিতের সংখ্যা ৫০০,০০০ পার হওয়ার মাত্র দু'দিনেই তা ৫৫০,০০০-র কাছাকাছি পৌঁছে গিয়েছে। এই হার বজায় থাকলে আগামী তিন-চারদিনের মধ্যে ভারতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৬০০,০০০ ছাড়িয়ে যেতে পারে। 

যদিও সুস্থ রোগীর সংখ্যাও ক্রমশ বাড়ছে। গত ২৪ ঘণ্টায় ১২,০০৯ জন করোনা মুক্ত হয়েছেন। তার আগের ২৪ ঘণ্টায় অবশ্য সংখ্যাটা (১৩,৮৩২) কিছুটা বেশি ছিল। সবমিলিয়ে মোট ৩২১,৭২২ জন করোনা রোগী সেরে উঠেছেন। তার জেরে সুস্থতার হার বেড়ে হয়েছে ৫৮.৬৭ শতাংশ। সেই পরিসংখ্যানে রীতিমতো আশাবাদী কেন্দ্র এবং বিশেষজ্ঞরা।

দিল্লির সফদরজং হাসপাতালের কমিউনিটি মেডিসিন বিভাগের প্রধান যুগল কিশোর বলেন, ‘যখন একদিনে আক্রান্ত এবং সুস্থ হয়ে ওঠা রোগীর সংখ্যা সমান নয়, তখন সাধারণত এটাই প্রমাণিত হয় যে সেই রোগের প্রাদুর্ভাব স্থিতিশীল হবে এবং কিছু সময় পর তা কমতে শুরু করবে। যদি না অন্যান্য কোনও বিষয় এসে পুরো কাঠামোকে পালটে দেয়।’ তবে এখনও দৈনিক সুস্থ হয়ে ওঠা রোগী এবং আক্রান্তের সংখ্যা মোটামুটি ৬,০০০-৭,০০০ পার্থক্য থাকছে।

এদিকে, রবিবারের তুলনায় সোমবার মৃতের সংখ্যাও কিছুটা কমেছে। গত ২৪ ঘণ্টায় ৩৮০ জন রোগীর মৃত্যু হয়েছে। ফলে সবমিলিয়ে মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৬,৪৭৫।

বন্ধ করুন