বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > মোদীকে জবাবি চিঠি ইমরানের, তুললেন কাশ্মীর প্রসঙ্গ
ইমরান খান এবং নরেন্দ্র মোদী। (ফাইল ছবি, সৌজন্য রয়টার্স এবং এএনআই)
ইমরান খান এবং নরেন্দ্র মোদী। (ফাইল ছবি, সৌজন্য রয়টার্স এবং এএনআই)

মোদীকে জবাবি চিঠি ইমরানের, তুললেন কাশ্মীর প্রসঙ্গ

  • পাকিস্তানের মানুষ ভারত সহ প্রতিবেশি দেশের সঙ্গে শান্তিপূর্ণ ও সহযোগিতামূলক সম্পর্ক স্থাপন করতে চায়।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বার্তা পাঠানোর পর এবার পাল্টা চিঠি দিয়ে বন্ধুত্বপূর্ণ আলোচনার আবেদন জানালেন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। চিঠিতে গঠনমূলক ও সদর্থক আলোচনার দাবি তুলেছেন তিনি। ২০১৯ সালের আগস্টে কাশ্মীরে বিশেষ মর্যাদা লোপের পর ভারত ও পাকিস্তান, দুই দেশের মধ্যে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক তলানিতে এসে ঠেকে।তবে সম্প্রতি পাকিস্তান দিবসের দিন মোদীর শুভেচ্ছা বার্তা ইসলামাবাদে পৌঁছোনোর পর দুই দেশের মধ্যে ফের কূটনৈতিক স্তরে আলোচনার সম্ভাবনা দেখা দেয়।এ

চিঠিতে পাক প্রধানমন্ত্রী লিখেছেন, পাকিস্তানের মানুষ ভারত সহ প্রতিবেশী দেশের সঙ্গে শান্তিপূর্ণ ও সহযোগিতামূলক সম্পর্ক স্থাপন করতে চায়।এটা ঠিক যে দক্ষিণ এশিয়ায় শান্তিস্থাপন তখনই সম্ভব, যখন ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে কাশ্মীর সমস্যা সহ যাবতীয় সমাধান সম্ভব হবে।তবে ভারতের তরফে এখনই কোনও প্রতিক্রিয়া জানানো হয়নি।

সম্প্রতি করোনা আক্রান্ত হয়েছিলেন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। ইমরানের আরোগ্য কামনা করে ট্যুইট করতে দেখা গিয়েছে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।সেই সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী পাকিস্তানের সঙ্গে বিশ্বাস ও বন্ধুত্বপূর্ণ বাতাবরণ তৈরি করারও বার্তা দেন। তবে তিনি বলেন যে সন্ত্রাস দমন না করলে সম্পর্কে বিশ্বাস সৃষ্টি করা যাবে না। তার পালটা হিসাবেই কাশ্মীরের কথা ইমরান উত্থাপন করলেন বলে মনে করা হচ্ছে। 

পাকিস্তান দিবসে শুধু প্রধানমন্ত্রী নন, একইসঙ্গে পাক রাষ্ট্রপতি অরিফ আলভিকে বার্তা পাঠান রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ।ওয়াকিবহাল মহলের মতে, দুই দেশের মধ্যে প্রশাসনিক স্তরে এভাবে চিঠি চালাচালি দুই দেশের মধ্যে আলোচনার রাস্তাকে আরো প্রশস্ত করবে বলেই মনে করা হচ্ছে।কিছুদিন আগে পাক সেনা প্রধান বাজওয়া জানান, সময় এসে গিয়েছে পুরনো অতীতকে দূরে সরিয়ে সামনের দিকে এগিয়ে যাওয়ার। তবে তিনি এও জানান, কাশ্মীর সমস্যার সমাধান ছাড়া দুই দেশের মধ্যে শান্তিস্থাপন সম্ভব নয়।

 

বন্ধ করুন