মোদী-ট্রাম্প (ছবি সৌজন্য রয়টার্স)
মোদী-ট্রাম্প (ছবি সৌজন্য রয়টার্স)

শিকারি কপ্টার-সহ সমরাস্ত্র কিনতে ৩০০ কোটি ডলারের প্রতিরক্ষা চুক্তি ভারতের

  • সমুদ্রে নজরদারি চালানোর পাশাপাশি শত্রুপক্ষের উপর হামলাও চালাতে পারবে নয়া কপ্টার।

অত্যাধুনিক মাল্টি রোল হেলিকপ্টার নিয়ে ভারত মহাসাগরে রীতিমতো দাপিয়ে বেড়াচ্ছে চিন। তার সঙ্গে ভারতের পুরনো ‘সি কিং চপার’-এর এঁটে ওঠা অসম্ভব। সে কথা মাথায় রেখে অত্যাধুনিক মাল্টি রোল হেলিকপ্টার কেনার বিষয়ে কথাবার্তা চলছিল। এদিন আনুষ্ঠানিকভাবে ২৪টি এমএইচ-৬০ রোমিও সি-হক মাল্টি-রোল হেলিকপ্টার কেনার চুক্তি সই করল ভারত।

আরও পড়ুন : মুসলিমদের বিরুদ্ধে বৈষম্য নিয়ে মোদীর 'প্রভাবশালী' জবাব মিলেছে, জানালেন ট্রাম্প

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের দু'দিনের ভারত সফরে যে সিদ্ধান্ত হয়েছে, তার মধ্যে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ এটি। এদিন হায়দরাবাদ হাউসে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক বৈঠকের পর আনুষ্ঠানিকভাবে ৩০০ কোটি ডলারের প্রতিরক্ষা চুক্তির ঘোষণা করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

ট্রাম্পের ভারত সফরের দ্বিতীয় দিনের লাইভ ব্লগ

নয়া প্রতিরক্ষা চুক্তি অনুযায়ী ২৪টি এমএইচ-৬০ রোমিও সি-হক মাল্টি-রোল হেলিকপ্টার কেনার জন্য ভারতের খরচ হবে ২৬০ কোটি ডলার। গত সপ্তাহেই মার্কিন সংস্থা লকহিড মার্টিং কর্পের কাছ থেকে এই হেলিকপ্টার কেনার প্রস্তাবে সিলমোহর দিয়েছিলে কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা।

আরও পড়ুন : CAA নিয়ে সঠিক সিদ্ধান্ত নেবে ভারত, আশা পোটাসের

কিন্তু নয়া এই কপ্টারের বিশেষত্ব কী? বিশেষজ্ঞরা জানান, সমুদ্রে নজরদারি চালানোর পাশাপাশি শত্রুপক্ষের উপর হামলাও চালাতে পারবে এই নয়া কপ্টার। শুধু তাই না, জলের গভীরে থাকা ডুবোজাহাজ সহজেই খুঁজে বের করতে পারবে রোমিও সি-হক। জলের যত গভীরেই থাক না কেন সেই ডুবোজাহাজ, তা নয়া কপ্টারের সেন্সরে ধরা পড়বে। ডুবোজাহাজের উপর হামলা চালাতে পারবে। শত্রুপক্ষের জাহাজের হামলা চালাতে সক্ষম এই শিকারি কপ্টার। রয়েছে মেশিনগান। নয়া কপ্টার ভারতের হাতে এলে ভারত মহাসাগরে ভারতের হাত আরও শক্ত হবে।একইসঙ্গে ছ'টি অত্যাধুনিক এএইচ-৬৪ই অ্যাপাচে হেলিকপ্টার কিনছে ভারত। সেজন্য ৮০ লাখ ডলার গুনতে হবে ভারতকে। পাশাপাশি, এয়ার-ডিফেন্স রেডার, ক্ষেপণাস্ত্র, রাইফেল, পোসেইডন পি৮১ মাল্টি-মিশন এয়ারক্রাফ্টও কিনতে পারে ভারত।

বন্ধ করুন