বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > পাঁচতারা আতিথেয়তা পাচ্ছে মুম্বই বিস্ফোরণের অভিুক্তরা, পাকিস্তানকে খোঁচা ভারতের
দাউদ ইস্যুতে পাকিস্তানকে খোঁচা ভারতের
দাউদ ইস্যুতে পাকিস্তানকে খোঁচা ভারতের

পাঁচতারা আতিথেয়তা পাচ্ছে মুম্বই বিস্ফোরণের অভিুক্তরা, পাকিস্তানকে খোঁচা ভারতের

  • ২০২০ সালে পাকিস্তান বকলমে স্বীকার করে নেয় যে ডি কোম্পানি প্রধান তথা ১৯৯৩ সালের মুম্বই বিস্ফোরণের মূলচক্রী দাউদ ইব্রাহিম পাকিস্তানেই রয়েছে।

১৯৯৩ সালে মুম্বই বিস্ফওরণের অভিযুক্তরা পাকিস্তানে পাঁচতারা আপ্যায়নে বসবাস করছে। রাষ্ট্রসংঘের মঞ্চে পাকিস্তানকে তোপ দেগে এমনই বললেন রাষ্ট্রসংঘে ভারতের স্থায়ী প্রতিনিধি টিএস তিরুমূর্তি। আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসবিরোধী সম্মেলনে তিরুমূর্তি বলেন, ‘আমরা দেখেছি যে ১৯৯৩ সালের মুম্বই বোমা বিস্ফোরণের জন্য দায়ী অপরাধ সিন্ডিকেটকে কেবল রাষ্ট্রীয় সুরক্ষা দেওয়া হয়নি বরং পাঁচতারকা আতিথেয়তা দেওয়া হয়েছে।’

তিরুমূর্তি আরও বলেন, ‘এটি গুরুত্বপূর্ণ যে কাউন্সিল যে সমস্ত নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে, সেটা তাদের কাজের পদ্ধতি এবং সিদ্ধান্ত গ্রহণে প্রতিফলিত হয়। সিদ্ধান্ত গ্রহণের প্রক্রিয়া এবং তালিকাভুক্ত করার ব্যবস্থাগুলি উদ্দেশ্যমূলক, দ্রুত, বিশ্বাসযোগ্য, প্রমাণ ভিত্তিক এবং স্বচ্ছ হওয়া উচিত। রাজনৈতিক ও ধর্মীয় বিবেচনার ভিত্তিতে এই প্রক্রিয়া যাতে না হয়।’ তিরুমূর্তি জানান যে ১২৬৭ আল-কায়েদা নিষেধাজ্ঞা কমিটি সহ রাষ্ট্রসংঘের অন্য নিষেধাজ্ঞাগুলি সন্ত্রাসবাদে অর্থায়ন, সন্ত্রাসবাদীদের প্রভাব বিস্তার এবং সন্ত্রাসী সংগঠনগুলির হাতে অস্ত্র যাওয়া রোধ করতে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে পারে।

উল্লেখ্য, ২০২০ সালের অগস্টে পাকিস্তান সরকার ৮৮টি নিষিদ্ধ সন্ত্রাসী গোষ্ঠী এবং জঙ্গি নেতাদের উপর ব্যাপক নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে। সেই সময় পাকিস্তান প্রথমবারের মতো স্বীকার করে যে দাউদ ইব্রাহিম তাদের দেশেই উপস্থিত। ১৯৯৩ সালে মুম্বই হামলার নেপথ্যে থাকায় দাউদ ইব্রাহিম ভারতের মোস্ট ওয়ান্টেড সন্ত্রাসবাদীদের তালিকায় রয়েছে। তবে এর আগে বারংবার দিল্লি দাবি করে এলেও পাকিস্তানে দাউদের উপস্থিতির কথা অস্বীকার করত ইসলামাবাদ।

বন্ধ করুন