বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > সন্ত্রাস দমনে পারস্পরিক গোপন তথ্য লেনদেনে জোর দেবে ভারত, শ্রী লঙ্কা ও মলদ্বীপ
শনিবার কলম্বোয় ত্রি-দেশীয় আলোচনাসভায় অংশগ্রহণ করেন ভারতের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত ডোভাল, শ্রী লঙ্কার প্রতিরক্ষা সচিব কমল গুণরত্নে এবং মলদ্বীপের প্রতিরক্ষা মন্ত্রী মারিয়া দিদি।
শনিবার কলম্বোয় ত্রি-দেশীয় আলোচনাসভায় অংশগ্রহণ করেন ভারতের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত ডোভাল, শ্রী লঙ্কার প্রতিরক্ষা সচিব কমল গুণরত্নে এবং মলদ্বীপের প্রতিরক্ষা মন্ত্রী মারিয়া দিদি।

সন্ত্রাস দমনে পারস্পরিক গোপন তথ্য লেনদেনে জোর দেবে ভারত, শ্রী লঙ্কা ও মলদ্বীপ

  • আলোচনার প্রেক্ষিত ছিল ভারত মহাসাগরীয় অঞ্চলে চিনের আধিপত্য বিস্তারের প্রচেষ্টা এবং ভারত-চিন সীমান্ত বিবাদের মতো গুরুতর বিষয়।

সন্ত্রাস, মাদক পাচার ও আর্থিক দুর্নীতি রুখতে অনুসন্ধান সংক্রান্ত নথি আদানপ্রদানে সম্মত হল ভারত, মলদ্বীপ ও শ্রী লঙ্কা। একই সঙ্গে যৌথ নৌ-নিরাপত্তায় সহযোগিতার স্বার্থে ৬ বছর পরে আবার আলোচনায় বসল তিন প্রতিবেশী রাষ্ট্র।

শনিবার কলম্বোর আলোচনাসভায় অংশগ্রহণ করেন ভারতের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত ডোভাল, মলদ্বীপের প্রতিরক্ষা মন্ত্রী মারিয়া দিদি এবং শ্রী লঙ্কার প্রতিরক্ষা সচিব কমল গুণরত্নে। আলোচনায় ঠিক হয়েছে, সহযোগিতা জোরদার করতে বছরে দুই বার এই তিন দেশের সহকারি জাতীয় উপদেষ্টা স্তরে নিয়মিত বৈঠক হবে।

পূর্বতন শাসক আবদুল্লা ইয়ামিনের আমলে ভারতের সঙ্গে মলদ্বীপের সম্পর্কের অবনতি ঘটলে ত্রিপাক্ষিক আলোচনায় ভাটা পড়ে। দীর্ঘ ছয় বছরের বিরতির পরে এবারের আলোচনার প্রেক্ষিত ছিল ভারত মহাসাগরীয় অঞ্চলে চিনের আধিপত্য বিস্তারের প্রচেষ্টা এবং ভারত-চিন সীমান্ত বিবাদের মতো গুরুতর বিষয়। এই দুই কারণেই গত কয়েক মাস যাবৎ প্রতিবেশীদের সঙ্গে সম্পর্ক মজবুত করার উদ্যোগ নিয়েছে নয়া দিল্লি। 

শনিবার আলোচনার শেষে প্রকাশিত যৌথ বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘বৈঠকে তিন পক্ষই নিরাপত্তাজনিত বিষয়ে সবিস্তারে কথা বলেছে। সন্ত্রাসবাদ, মৌলবাদ, মাদক, অস্ত্র ও মানুষ পাচার, আর্থিক দুর্নীতি, সাইবার নিরাপত্তা এবং সামুদ্রিক পরিবেশে জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাবের মতো বিষয়ে পূর্ণ সহযোগিতা নিয়ে আলোচনা হয়েছে তিন প্রতিবেশী দেশের মধ্যে।’

২০১১ সালে মালেতে নৌ-নিরাপত্তা নিয়ে প্রথম ত্রিপাকষিক বৈঠক হয়। এর পরে ২০১৩ সালে কলম্বো ও ২০১৪ সালে নয়া দিল্লিতে বৈঠকে বসে তিন দেশ। শনিবারের বৈঠকে ভার্চুয়াল প্রক্রিয়ায় যোগ দিয়েছে মরিশাস ও সেশেলসও।

বন্ধ করুন