বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > 'পালটা পদক্ষেপের অধিকার আছে',কোভিশিল্ডকে স্বীকৃতি না দেওয়ায় ব্রিটেনকে তোপ ভারতের
ভারতীয় বিদেশ সচিব হর্ষ শ্রীংলা (ফাইল ছবি এএনআই) (ANI)
ভারতীয় বিদেশ সচিব হর্ষ শ্রীংলা (ফাইল ছবি এএনআই) (ANI)

'পালটা পদক্ষেপের অধিকার আছে',কোভিশিল্ডকে স্বীকৃতি না দেওয়ায় ব্রিটেনকে তোপ ভারতের

  • বিদেশ সচিব হর্ষবর্ধন শ্রীংলা হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, ‘পালটা পদক্ষেপের অধিকার রয়েছে ভারতেরও।’

ব্রিটিশ টিকা নীতি নিয়ে ভারত-ব্রিটেন চাপানউতোর চলছে। কোভিশিল্ডকে স্বীকৃতি না দেওয়া থেকে ব্রিটেনের বর্তমান টিকা নীতির প্রতিবাদে ব্রিটেন সফর বাতিল করেন শশী থারুর। সেখান থেকেই বিতর্ক শুরু হয়। এই আবহে এবার ব্রিটিশ টিকা নীতিকে বৈষম্যমূলক বলে আখ্যা দিলেন ভারতের বিদেশ সচিব হর্ষ শ্রীংলা। পাশাপাশি হুঁশিয়ারি দিয়ে তিনি বলেন, 'পালটা পদক্ষেপের অধিকার রয়েছে ভারতেরও।'

সম্প্রতি ব্রিটেন সরকারের তরফে ঘোষণা করে বলা হয়, যদি আফ্রিকা, দক্ষিণ আমেরিকার দেশ এবং ভারত, সংযুক্ত আরব আমিরশাহি, তুরস্ক, জর্ডান, থাইল্যান্ড এবং রাশিয়া থেকে কেউ টিকা নিয়ে থাকেন, তাহলে এমন ব্যক্তিকে টিকাপ্রাপ্ত বলে ধরা হবে না। তাই এই ব্যক্তিরা ব্রিটেনে এলে তাদের ১০দিন কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে এবং করোনা পরীক্ষা করাতে হবে। এই নয়া নিয়ম ঘোষিত হতেই নিজের বই প্রকাশের ইভেন্ট বাতিল করেন কংগ্রেস সাংসদ শশী থারুর। থারুরের বক্তব্য ছিল, 'দুই ডোজ টিকাপ্রাপ্ত ভারতীয়দের কোয়ারেন্টাইনে থাকতে বলা অপমানজনক।' এরপরই এই বিষয়ে বিতর্ক তৈরি হয়।

এই আবহে আজ সাংবাদিক সম্মেলনে বিদেশ সচিব হর্ষবর্ধন শ্রীংলা বলেন, 'কোভিশিল্ড টিকাকে স্বীকৃতি না দেওয়া ব্রিটেনের বৈষম্যমূলক নীতি। এতে ব্রিটেনে সফরকারী ভারতীয়রা ক্ষতিগ্রস্ত হতে চলেছেন। ব্রিটেনের বিদেশ সচিবের সামনে গুরুত্ব সহকারে এই বিষয়টির উত্থাপন করা হয়েছে। আমাদের আশ্বাস দেওয়া হয়েছে, এই বিষয়টির দ্রুত নিষ্পত্তি হবে।' এদিকে এই বিষয়ে এদিন ব্রিটেন বিদেশ সচিবের সঙ্গে আলোচনা হয় ভারতের বিদেশমন্ত্রী এস জয়শংকরের।

বন্ধ করুন