বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ভারতীয় বংশোদ্ভূতের 'গলা চেপে' ধরল শ্বেতাঙ্গ, নির্যাতিতকে ৩ দিন সাসপেন্ড স্কুলের!
আমেরিকার স্কুলে এক ভারতীয় বংশোদ্ভূত পড়ুয়ার উপর অত্যাচারের অভিযোগ উঠল। (ছবি সৌজন্যে ভাইরাল ভিডিয়ো/এএনআই)

ভারতীয় বংশোদ্ভূতের 'গলা চেপে' ধরল শ্বেতাঙ্গ, নির্যাতিতকে ৩ দিন সাসপেন্ড স্কুলের!

  • ভিডিয়োয় দেখা গিয়েছে যে জায়গা ছেড়ে না দেওয়ায় ওই শ্বেতাঙ্গ ছেলেটি এগিয়ে আসে। ভারতীয় বংশোদ্ভূত পড়ুয়ারা গলা চেপে ধরে থাকে। অভিযোগ, চার মিনিটের বেশি সেভাবেই ধরে রাখে ভারতীয় বংশোদ্ভূত পড়ুয়াকে।

আমেরিকার স্কুলে এক ভারতীয় বংশোদ্ভূত পড়ুয়ার উপর অত্যাচারের অভিযোগ উঠল। শুধু তাই নয়, চার মিনিটের বেশি ওই পড়ুয়ার গলা চেপে রাখা হয়েছিল বলেও অভিযোগ করা হয়েছে। যে ঘটনার ভিডিয়ো (সত্যতা যাচাই করেনি হিন্দুস্তান টাইমস বাংলা) সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে গিয়েছে।

সংবাদসংস্থা এএনআই জানিয়েছে, টেক্সাসের কোপ্পেল মিডল স্কুলে সেই ঘটনা ঘটেছে। সেই ঘটনার ভিডিয়ো তুলে অনলাইনে ফাঁস করে দিয়েছে ভারতীয় বংশোদ্ভূত পড়ুয়ার সহপাঠী। ভিডিয়োয় দেখা গিয়েছে, ওই ভারতীয়-আমেরিকান পড়ুয়া খাবার জায়গায় বেঞ্চে বসে আছে। তার দিকে এগিয়ে আসছে এক শ্বেতাঙ্গ ছেলে। ভারতীয় বংশোদ্ভূত পড়ুয়াকে উঠে দাঁড়াতে বলে সে। নির্যাতিত পড়ুয়াকে বলতে শোনা যায়, ‘না, আমি উঠব না। এখানে কার্যত কেউ বসে নেই।’

এএনআইয়ের প্রতিবেদন অনুযায়ী, ভিডিয়োয় দেখা গিয়েছে যে জায়গা ছেড়ে না দেওয়ায় ওই শ্বেতাঙ্গ ছেলেটি এগিয়ে আসে। ভারতীয় বংশোদ্ভূত পড়ুয়ার গলা চেপে ধরে থাকে। অভিযোগ, চার মিনিটের বেশি সেভাবেই ধরে রাখে ভারতীয় বংশোদ্ভূত পড়ুয়াকে।

সেই ভিডিয়ো ছড়িয়ে পড়তেই প্রতিবাদে সরব হয়েছেন নেটিজেনদের একাংশ। এএনআইয়ের প্রতিবেদন অনুযায়ী, গত ১১ মে সেই ঘটনা ঘটেছে। রবি কাকারা নামে এক আইনজীবী জানিয়েছেন, বুধবার ওই ভারতীয় বংশোদ্ভূত পড়ুয়াকে শারীরিকভাবে নির্যাতন করা হয়। মিডল স্কুলের এক পড়ুয়া তার গলা চেপে ধরেছিল। বিষয়টি নিয়ে উত্তর আমেরিকার ভারতীয় পড়ুয়াদের সংগঠনের অভিযোগ, নির্যাতিত পড়ুয়াকে তিনদিন সাসপেন্ড করে দেয় স্কুল কর্তৃপক্ষ। সেখানে নির্যাতন চালানো পড়ুয়াকে একদিনের সাসপেনশন দেওয়া হয়।

বন্ধ করুন