বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > চিন সীমান্তে ভারত আগের থেকে অনেক বেশি সজ্জিত এবং সতর্ক : IAF প্রধান
এয়ার চিফ মার্শাল আরকেএস ভাদৌরিয়া (ফাইল ছবি) (HT_PRINT)
এয়ার চিফ মার্শাল আরকেএস ভাদৌরিয়া (ফাইল ছবি) (HT_PRINT)

চিন সীমান্তে ভারত আগের থেকে অনেক বেশি সজ্জিত এবং সতর্ক : IAF প্রধান

  • তিনি বলেন, গতবছর গালওয়ান সংঘর্ষের থেকে শিক্ষা নিয়ে এখন আরও শক্তিশালী হয়েছে ভারতীয় সামরিক বাহিনী।

ভারত-চিন সীমান্তে সতর্ক রয়েছে ভারতীয় সামরিক বাহিনী। এমনটাই জানালেন ভারতীয় বায়ুসেনা প্রধান এয়ার চিফ মার্শাল আরকেএস ভাদৌরিয়া। গতবছর গালওয়ান সংঘর্ষের থেকে শিক্ষা নিয়ে এখন আরও শক্তিশালী হয়েছে ভারতীয় সামরিক বাহিনী। এদিকে ভারতীয় বায়ুসেনা প্রধান দাবি করেন, আকাশপথে আরও শক্তিশালী হবে। এদিন বায়ুসেনা অ্যাকাডেমির একটি স্নাতক প্যারেড অনুষ্ঠানে অংশ নেন বায়ুসেনা প্রধান। এরপরই এই বিষয়ে সাংবাদিকদের কাছে মুখ খোলেন তিনি।

এদিন বায়ুসেনা প্রধান বলেন, 'নিরাপত্তা পোক্ত করা হচ্ছে। আমূল পরিবর্তন হবে বায়ুসেনাতেও। প্রতিবেশী পাকিস্তান ও চিনের ভৌগলিক এবং কূটনৈতিক অস্থিরতার কথা মাথায় রেখেই এই বদলের সিদ্ধান্ত। ভারতীয় বায়ুসেনায় অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ পরিবর্তন হতে চলেছে। আরও বেশি করে প্রযুক্তির ব্যবহার হবে সামরিক ক্ষেত্রে।'

তিনি আরও বলেন, 'গত কয়েক দশকে ভারতের সামরিক ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছে বায়ুসেনা। এর ফলে বায়ুসেনার গুরুত্ব বেড়েছে। বায়ুসেনার এই রূপান্তর অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ। বর্তমানে ফের নিরাপত্তা সংক্রান্ত চ্যালেঞ্জের সম্মুখীন হয়েছে দেশ।' এরপর তিনি জানান, ২০২২ সালের মধ্যেই ভারতীয় বায়ুসেনায় অন্তর্ভুক্ত হবে ৩৬টি রাফাল যুদ্ধবিমান। উল্লেখ্য, সীমান্তে পাকিস্তান এবং চিনের চোখ রাঙানি ঠেকাতে ভারতের অন্যতম হাতিয়ার এখন রাফাল।

বন্ধ করুন