বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > দুই আধিকারিকের বিবাদ মেটাতে ‘কোর্ট অফ এনকোয়ারি’-র নির্দেশ সেনাবাহিনীর
এর আগে দুই সেনাকর্তার বিবাদের নিষ্পত্তি করতে সেন্ট্রাল আর্মি কম্যান্ডার লেফটেন্যান্ট জেনারেল আই এস ঘুমানকে দায়িত্ব দেন সেনাপ্রধান জেনারেল মনোজ মুকুন্দ নরভানে।
এর আগে দুই সেনাকর্তার বিবাদের নিষ্পত্তি করতে সেন্ট্রাল আর্মি কম্যান্ডার লেফটেন্যান্ট জেনারেল আই এস ঘুমানকে দায়িত্ব দেন সেনাপ্রধান জেনারেল মনোজ মুকুন্দ নরভানে।

দুই আধিকারিকের বিবাদ মেটাতে ‘কোর্ট অফ এনকোয়ারি’-র নির্দেশ সেনাবাহিনীর

  • দুই শীর্ষস্থানীয় সেনা আধিকারিকের মধ্যে বচসার জেরে তদন্ত করতে ‘কোর্ট অফ এনকোয়ারি’-র নির্দেশ দিল ভারতীয় সেনাবাহিনী।

দুই শীর্ষস্থানীয় সেনা আধিকারিকের মধ্যে বচসার জেরে তদন্ত করতে ‘কোর্ট অফ এনকোয়ারি’-র নির্দেশ দিল ভারতীয় সেনাবাহিনী। মঙ্গলবার ওয়াকিবহাল সূত্রে এই খবর পাওয়া গিয়েছে।

কয়েক মাস আগে দুই সেনাকর্তার বিবাদের নিষ্পত্তি করতে সেন্ট্রাল আর্মি কম্যান্ডার লেফটেন্যান্ট জেনারেল আই এস ঘুমানকে দায়িত্ব দেন সেনাপ্রধান জেনারেল মনোজ মুকুন্দ নরভানে। 

সেনা সূত্রে খবর, জয়পুরে বাহিনীর সদর দফতরে সাউথ ওয়েস্টার্ন কম্যান্ড এবং তাঁর চিফ অফ স্টাফ-এর মধ্যে দায়িত্ব পালন ও বাহিনীতে নিজেদের ভূমিকা সংক্রান্ত বিষয়ে মতান্তরের সূত্রপাত হয়, যা সেনার ইতিহাসে বিরলতম। 

উল্লেখ্য, সাউথ ওয়েস্টার্ন কম্যান্ড-এর নেতৃত্বে রয়েছেন আর্মর্ড কোর অফিসার লেফটেন্যান্ট জেনারেল অলোক ক্লের এবং তাঁর সেকেন্ড-ইন-কম্যান্ড পদে নিযুক্ত রয়েছেন লেফটেন্যান্ট জেনারেল কে কে রেপসওয়াল, যিনি কোর অফ ইঞ্জিনিয়ার্স বাহিনীভুক্ত। 

২০২০ সালে দুই থ্রি স্টার সেনা আধিকারিকের থেকে অভিযোগ পাওয়ার পরে বিষয়টি খতিয়ে দেখে রিপোর্ট দিতে সেনাবাহিনীর তৎকালীন ভাইস চিফ লেফটেন্যান্ট জেনারেল এস কে সাইনিকে সেপ্টেম্বর মাসে দায়িত্ব দেন জেনারেল নরভানে। গত ৩১ জানুয়ারি সাইনি অবসরগ্রহণ করেন।

সাউথ ওয়েস্টার্ন কম্যান্ড-এ প্রায় ১,৩০,০০০ সৈন্য রয়েছেন। রাজস্থান ও পঞ্জাবে পাকিস্তানের সঙ্গে ভারতের সীমান্ত সুরক্ষিত রাখার দায়িত্বে রয়েছে এই বাহিনী।

বন্ধ করুন