বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > কিছুটা খুলল লাদাখের জট, গোগরা থেকে সেনা সরাল ভারত-চিন
প্যাংগং সো লেকে চলছে সেনা সরানোর প্রক্রিয়া। (ফাইল ছবি, সৌজন্য রয়টার্স)
প্যাংগং সো লেকে চলছে সেনা সরানোর প্রক্রিয়া। (ফাইল ছবি, সৌজন্য রয়টার্স)

কিছুটা খুলল লাদাখের জট, গোগরা থেকে সেনা সরাল ভারত-চিন

  • প্রায় ছয় মাস বাদে ফের ইতিবাচক পদক্ষেপ লাদাখ সমস্যার। 

প্যাংগং থেকে সেনা সরানোর প্রায় ছয় মাস অতিক্রান্ত হওয়ার পর ফের কিছুটা খুলল লাদাখের জট। এবার ভারত ও চিন গোগরা অর্থাৎ প্যাট্রোল পয়েন্ট ১৭এ থেকে সেনা সরিয়ে নিয়েছে। গত সপ্তাহে ভারত ও চিনের সেনার মধ্যে দ্বাদশ রাউন্ড আলোচনা হয়। সেখানেই এই নিয়ে দুই দেশ সহমত হয় বলে জানা গিয়েছে। 

তারপেরই অগস্টের ৪ ও ৫ তারিখ সেনা সরানোর কাজ হয়েছে। এর আগে প্যাংগং লেকের কাছ থেকে ফেব্রুয়ারিতে সেনা সরিয়েছিল দুই দেশ। এদিন সেনার তরফ থেকে বিবৃতি দেওয়া হয়েছে যে দুই দেশ গোগরা থেকে ধাপে ধাপে সেনা সরিয়েছে। সেটি ইতিমধ্যে যাচাইও করা হয়েছে। নিজেদের স্থায়ী ছাউনিতে সরে গিয়েছে দুই দেশের সেনা। যেসব অস্থায়ী ছাউনি ছিল সেগুলি দুই দেশই ভেঙে দিয়েছে। ফলে গত বছরের এপ্রিলে যে পরিস্থিতি ছিল গোগরায়, এখন আবার সেটি ফিরে এসেছে।  

প্রসঙ্গত বিগত ১৫ মাস ধরে লাদাখে সম্মুখ সমরে ভারত ও চিন। গালওয়ানে তো রীতিমত রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষও হয় গত বছর। তারপর দফায় দফায় কথার মাধ্যমে কিছুটা পরিস্থিতি বদলেছে। 

তবে মাঝে অনেক দিন আলোচনা বন্ধ ছিল। তারপর ভারত ও চিন বিদেশমন্ত্রী গত মাসে বৈঠক করেন। তারপর ফের লাদাখে আলোচনা নয়া গতি পায়। এখনও হট স্প্রিংস ও ডেপসাংয়ে সমস্যা বজায় আছে। তবে ডেপসাংয়ে এখন থেকে নয়, আগে থেকেই প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখা চিন লঙ্ঘন করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। বর্তমানে লাদাখে দুই দেশের প্রায় ৫০-৬০ হাজার সেনা আছে। ভারতীয় সেনাকে সীমান্ত রক্ষা করায় সাহায্য করে আইটিবিপি। সেনাবাহিনী যে নিয়ন্ত্রণ রেখা বরাবর শান্তি বজায় রাখতে সচেষ্ট সেটাও বলা হয়েছে বিবৃতিতে। 

বন্ধ করুন