বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ভারতীয় নৌসেনায় যুক্ত হচ্ছে আরও ২৬টি ফাইটার জেট
আইএনএস বিক্রমাদিত্য। ফাইল ছবি: এপি (AP)

ভারতীয় নৌসেনায় যুক্ত হচ্ছে আরও ২৬টি ফাইটার জেট

ফাইটার জেটের সংখ্যা বৃদ্ধির ফলে, ভারত মহাসাগরীয় অঞ্চলে নৌবাহনীর শক্তি বৃদ্ধি হবে। ইজারায় নয়, ড্যাসল্ট বা ইউএস বোয়িং-এর কাছ থেকে ফাইটারগুলি সরাসরি জি-টু-জি(দুই সরকারের মধ্যে লেনদেন) ভিত্তিতে কেনা হবে।

INS বিক্রান্তের জন্য ২৬টি ফাইটার জেট কিনবে ভারত। কেন্দ্রীয় সরকারি আধিকারিকদের সূত্রে মিলল এমনই খবর।

গত জানুয়ারিতেই গোয়ায় ভারতীয় নৌবাহিনীর পরীক্ষা কেন্দ্রে ফরাসি রাফাল-মেরিনের পরীক্ষামূলক ফ্লাইট হয়েছে। অন্যদিকে আগামী ১৫ জুনের মধ্যে মার্কিন F-18 সুপার হর্নেটের ট্রায়াল সেরে ফেলা হবে। মোট ২৬টি যুদ্ধবিমান। তার মধ্যে ৮টি টুইন সিটার প্রশিক্ষক বিমান।

প্রশিক্ষক বিমানের মাধ্যমে নৌসেনার নতুন পাইলটদেরও যুদ্ধবিমান চালনার ট্রেনিং দেওয়া যাবে।

তবে, এগুলি যে শুধু ট্রেনিংয়ে ব্যবহৃত হবে, তা নয়। যুদ্ধ পরিস্থিতিতেও ব্যবহার করা যেতে পারে। ফাইটারগুলি ভারতেই রক্ষণাবেক্ষণ ও মেরামত করা যাবে।

ফাইটার জেটের সংখ্যা বৃদ্ধির ফলে, ভারত মহাসাগরীয় অঞ্চলে নৌবাহনীর শক্তি বৃদ্ধি হবে।

দুটি যুদ্ধবিমানেরই গোয়ার পরীক্ষা কেন্দ্রে পরীক্ষা-নিরীক্ষার হয়েছে। কিন্তু সেগুলি এখনও ভারতের একমাত্র বিমানবাহী ক্যারিয়ার জাহাজ INS বিক্রমাদিত্যে অবতরণ করেনি। কারণ বর্তমানে INS বিক্রমাদিত্য রক্ষণাবেক্ষণের অধীনে রয়েছে। জুনের পরে যাত্রা শুরু করবে।

ফলে INS বিক্রমাদিত্যে যাত্রা শুরু করলেই তাতে টেক অফ ও ল্যান্ডিংয়ের পরীক্ষা করতে পারবে নৌসেনা।

কেন্দ্রের উচ্চপদস্থ আধিকারিকদের মতে, ইজারায় নয়, নৌবাহিনীর এভিয়েশন শাখার মূল্যায়নের ভিত্তিতে ফ্রেঞ্চ ড্যাসল্ট বা ইউএস বোয়িং-এর কাছ থেকে ফাইটারগুলি সরাসরি জি-টু-জি(দুই সরকারের মধ্যে লেনদেন) ভিত্তিতে কেনা হবে।

বন্ধ করুন