বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > স্লিপার ক্লাসে এবার আরামের সফর, নতুন ডিজাইনের বার্থ চালু করল রেল
যাত্রীদের অভিযোগ, স্লিপার ক্লাস কামরার সাইড লোয়ার বার্থে শুয়ে সফর করলে শরীরে অসহ্য যন্ত্রণা হয়।
যাত্রীদের অভিযোগ, স্লিপার ক্লাস কামরার সাইড লোয়ার বার্থে শুয়ে সফর করলে শরীরে অসহ্য যন্ত্রণা হয়।

স্লিপার ক্লাসে এবার আরামের সফর, নতুন ডিজাইনের বার্থ চালু করল রেল

  • সফরকারীদের সমস্যা সমাধানে স্লিপার ও থ্রি টায়ার এসি কোচের সাইড লোয়ার বার্থে গুরুত্বপূর্ণ সংযোজন করেছে রেল দফতর।

ট্রেন যাত্রীদের আরামদায়ক সফরের জন্য থ্রি টায়ার কামরায় নতুন ডিজাইনের লোয়ার সাইড বার্থ চালু করল ভারতীয় রেল। 

স্লিপার কোচ এবং থ্রি টায়ার এসি কোচের সাইড লোয়ার বার্থ পেলে অনেকেই অসুবিধায় পড়েন। যাত্রীদের একাংশের অভিযোগ, ওই বার্থে শুয়ে সফর করলে শরীরে অসহ্য যন্ত্রণা হয়। অনেকে সেই কারণে ঘুমোতেও পারেন না। 

কামরার অন্যান্য বার্থের তুলনায় স্লিপার কোচের লোয়ার সাইড বার্থ অনেকটাই আলাদা। এই রকম বার্থে মুখোমুখি বসার ব্যবস্থা দু’টি বিচ্ছিন্ন আসনে। শোয়ার সময় সেই দুই আসনের পিঠের অংশ খুলে দিলে একটি বার্থ সৃষ্টি হয়।

বসার সময় অসুবিধা দেখা না দিলেও শুতে গেলে সমস্যায় পড়েন ওই বার্থের যাত্রী। দু’টি পৃথক আসনের অংশ জুড়ে তৈরি বার্থের মাঝে যে বিভাজনরেখা থাকে, ট্রেনের ঝাঁকুনিতে তার তারতম্য ঘটে। অনেক সময়েই দুটি অংশের উচ্চতার ফারাক থাকায় শোয়ার সময় পিঠ, কোমর-সহ গোটা মেরুদণ্ডে তীব্র যন্ত্রণা সৃষ্টি হয়। যাত্রা শেষ করার পরেও থেকে যায় সেই সমস্যা।

সফরকারীদের সমস্যা সমাধানে এবার স্লিপার ও থ্রি টায়ার এসি কোচের সাইড লোয়ার বার্থে একটি গুরুত্বপূর্ণ সংযোজন করেছে রেল দফতর। ওই বার্থের উচ্চতায় সমতা আনতে যোগ করা হয়েছে গদিআঁটা একটি অতিরিক্ত বোর্ডের। 

ভাঁজ করা দু’টি আসনের পিঠের অংশ ফেলার পরে তার উপরে পেতে দিতে হবে সঙ্গে দেওয়া এই বোর্ড। এর ফলে শয্যায় উঁচু-নীচুর ফারাক দূর হয়ে একটি সম্পূর্ণ সমতল শয্যা তৈরি হবে। এ ছাড়াও, বোর্ডটি আসনের চেয়ে অল্প চওড়া হওয়ায় শোয়ার সময় যাত্রীদের বাড়তি সুবিধা মিলবে।

বন্ধ করুন