বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > আক্রান্তদের পাশে রেল, সংক্রমণের ঢেউ রুখতে ফের চালু 'করোনা কোচ'
ভোপাল স্টেশনে দাঁড়িয়ে করোনা কোচ (সৌজন্যে পিটিআই)
ভোপাল স্টেশনে দাঁড়িয়ে করোনা কোচ (সৌজন্যে পিটিআই)

আক্রান্তদের পাশে রেল, সংক্রমণের ঢেউ রুখতে ফের চালু 'করোনা কোচ'

  • রেল বোর্ডের চেয়ারম্যান সাংবাদিকদের জানান, করোনা রোগীদের জন্য এখনও পর্যন্ত মোট ৪১৭৬টি কোচকে ব্যবহারযোগ্য করে তুলেছে রেল।

করোনা আবহে রেলের কোচকে আইসোলেশন সেন্টর হিসেবে ব্যবহার করা হয়েছিল ২০২০ সালে। করোনার দ্বিতীয় ঢেউতে জর্জরিত দেশে ফের সেই ব্যবস্থা এনেছে রেল। এদিন সাংবাদিক সম্মেলেনে রেলের তরফে 'করোনা কোচ' আরও বাড়ানোর কথাও জানানো হয়। বেড ও অক্সিজেনের অভাবে দেশজুড়ে যখন হাহাকার, তখন রেলের এই উদ্যোগে কিছুটা হলে স্বস্তি পাবে সংশ্লিষ্ট রাজ্যগুলি।

এদিন রেল বোর্ডের চেয়ারম্যান সাংবাদিকদের জানান, করোনা রোগীদের জন্য মোট ৪১৭৬টি কোচকে ব্যবহারযোগ্য করে তুলেছে রেল। বিভিন্ন রাজ্যকে এই কোচ ব্যবহারের বিষয়ে জানানো হয়েছে রেলের তরফে। ইতিমধ্যেই বিভিন্ন রাজ্য রেলের কাছে কোচ চেয়ে পাঠিয়েছে। এবং চাহিদা অনুযায়ী কোচ দিয়েছে রেল।

এদিন রেলের তরফে জানানো হয় দিল্লির শকুরবস্তিতে এখনও পর্যন্ত ৫০টি কোচ দেওয়া হয়েছে যাতে মোট ৮০০টি বেড রয়েছে। সেখানে এখন ৪ জন রোগী রয়েছেন। এছাড়া আনন্দ বিহারে আরও ২৫টি কোচ দিয়েছে রেল। এতে ৪০০টি বেড রয়েছে। এখানে কোনও রোগী ভর্তি নেই। এদিকে মহারাষ্ট্রের নানদরবারে রয়েছে ২১টি কোচ। সেখানে মোট ৩৭৮টি বেড রয়েছে। সেখানে বর্তমানে ৫৫ জন রোগী ভর্তি রয়েছেন। এছাড়া ভোপালেও ৪০টি কোচ দিয়েছে রেল। রেলের তরফে এদিন আরও জানানো হয় যে মধ্যপ্রদেশের জবলপুরে ২০টি এবং পঞ্জাবে ৫০টি কোচ তৈরি রয়েছে রোগীদের জন্য।

প্রসঙ্গত, গত ৩ সপ্তাহ ধরে করোনার ঊর্ধ্বমুখী গ্রাফ চিন্তার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে সবার জন্য। সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউয়ের ভারত প্রায় সব রেকর্ড ভেঙে ফেলেছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে নাজেহাল হতে হচ্ছে কেন্দ্র তথা রাজ্যগুলিকে। এই পরিস্থিতিতে অক্সিজেনের ঘাটতি সবচেয়ে বড় সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে। করোনায় শ্বাসকষ্ট হওয়া রোগীদের প্রয়োজনীয় অক্সিজেন দেওয়া যাচ্ছে না। ফলে ক্রমশ মৃত্যুর হারও বেড়ে চলেছে। সেই সমস্যার সমাধান করতে অক্সিজেন এক্সপ্রেস চালু করেছে ভারতীয় রেল। 

 

বন্ধ করুন