বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > India-Nepal: ভারত সফরে নেপালের প্রধানমন্ত্রী, বিদ্যুৎ-রেল নানা বিষয় নিয়ে আলোচনার সম্ভাবনা

India-Nepal: ভারত সফরে নেপালের প্রধানমন্ত্রী, বিদ্যুৎ-রেল নানা বিষয় নিয়ে আলোচনার সম্ভাবনা

নিউ দিল্লিতে মিটিংয়ে নেপালের প্রধানমন্ত্রী পুষ্পা কমল দাহাল, তাঁর কন্যা গঙ্গা দাহাল, নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত ডোভাল, বিদেশ সচিব বিনয় মোহন কাটরা।Pradeep Raj Onta/Prime Minister Office, Nepal via REUTERS  (via REUTERS)

বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গত সেপ্টেম্বর মাসে ভারতে এসেছিলেন। সেই সময় তিনি নেপাল ও ভুটান থেকে ভারতের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশে শক্তি সম্পদ নিয়ে যাওয়ার ব্যাপারে মত প্রকাশ করেছিলেন।

রেজাউল এইচ লস্কর

ভারত সফরে নেপালের প্রধানমন্ত্রী পুষ্পা কমল দাহাল। চারদিনের ভারত সফরে এসেছেন তিনি। মনে করা হচ্ছে বাংলাদেশের সঙ্গে একাধিক রেলরুট নিয়েও আলোচনা হতে পারে এবারের সফরে।

গত ডিসেম্বর মাসে নেপালের প্রধানমন্ত্রীর চেয়ারে বসেছিলেন পুষ্পা কমল দাহাল। এবারই তাঁর প্রথম ভারত সফর। মনে করা হচ্ছে নেপালের সঙ্গে একাধিক বিমান পথেরও সূচনা হতে পারে এবার। এছাড়াও বিদ্যুৎ সংক্রান্ত ব্য়াপারেও কথাবার্তা হতে পারে।

মনে করা হচ্ছে নেপালের প্রধানমন্ত্রী ভারত সফরে একাধিক চুক্তিও সই হতে পারে। ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে তাঁর আলোচনা হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।

সূত্রের খবর, নেপালের প্রধানমন্ত্রী সঙ্গে রাষ্ট্রপতি দ্রৌপদী মুর্মুর সাক্ষাৎ হতে পারে। এছাড়াও উপরাষ্ট্রপতি জগদীপ ধনখড়, বিদেশমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর ও জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত দোভালের সঙ্গেও তাঁর কথা হতে পারে।

তাঁর সফরসূচি অনুসারে খবর, আগামী ২ জুন তিনি মধ্যপ্রদেশের ইন্দোরে যেতে পারেন। সেখানকার পরিচ্ছন্নতা দেখার জন্য তিনি যাবেন।

মনে করা হচ্ছে নেপাল ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী দূরনিয়ন্ত্রিত ব্যবস্থার মাধ্যমে বিরাটনগরে একটি রেলওয়ে ইয়ার্ডের উদ্বোধন করা হবে।জয়নগর-জনকপুর রেল লিঙ্ক যেটা মোটামুটি বিজালপুরি পর্যন্ত বিস্তৃত সেটারও সূচনা হতে পারে। অন্যদিকে নেপালের পক্ষ থেকে নতুন এয়ার রুটের ব্যাপারে ভারতের কাছে প্রস্তাব দেওয়া হতে পারে।

এদিকে বৃহস্পতিবার শক্তিসম্পদের বেচাকেনা সংক্রান্ত ব্যাপারে উভয়পক্ষের মধ্য়ে কথাবার্তা হতে পারে। বাংলাদেশের কাছে শক্তি সম্পদ বিক্রি নিয়ে কথাবার্তা হতে পারেও বলেও মনে করা হচ্ছে।

এদিকে নেপালে জলবিদ্যুৎকেন্দ্র গড়ে তোলার ব্যাপারে আগ্রহ দেখিয়েছে ভারতীয় কোম্পানি। গত এপ্রিল মাসে নেপালে পাওয়ার সামিট হয়েছিল। সেই মিটিংয়ে ভারতীয় একাধিক প্রতিষ্ঠান অংশ নিয়েছিল বলে খবর।

এদিকে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গত সেপ্টেম্বর মাসে ভারতে এসেছিলেন। সেই সময় তিনি নেপাল ও ভুটান থেকে ভারতের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশে শক্তি সম্পদ নিয়ে যাওয়ার ব্যাপারে মত প্রকাশ করেছিলেন। তবে কাঠমান্ডু পোস্টে দাহালকে উদ্ধৃত করে জানানো হয়েছে, যদি আমরা বাংলাদেশকে বিদ্যুৎ বিক্রি করতে পারি তবে ইতিহাস আমাদের মনে রাখবে।

 

বন্ধ করুন