বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > India's First Village Mana: 'শেষ গ্রাম' হল 'প্রথম গ্রাম',সীমান্তে সাইনবোর্ড বসিয়ে চিনকে বার্তা ভারতের

India's First Village Mana: 'শেষ গ্রাম' হল 'প্রথম গ্রাম',সীমান্তে সাইনবোর্ড বসিয়ে চিনকে বার্তা ভারতের

উত্তরাখণ্ডের ‘মানা’ গ্রামকে ভারতের প্রথম গ্রাম হিসেবে চিহ্নিত করে সাইনবোর্ড বসাল BRO

উত্তরাখণ্ডের ‘মানা’ গ্রামকে ভারতের প্রথম গ্রাম হিসেবে চিহ্নিত করে সাইনবোর্ড বসাল বর্ডার রোড অর্গনাইজেশন। 'মানা'-তে নয়া সাইনবোর্ড প্রসঙ্গে উত্তরাখণ্ডের মুখ্যমন্ত্রী টুইট বার্তায় লিখেছেন, 'আমাদের সরকার সীমান্তবর্তী এলাকার সার্বিক উন্নয়নের জন্য বদ্ধপরিকর।'

উত্তরাখণ্ডের ছোট্ট একটা গ্রাম 'মানা'। পর্যটকদের কাছে এটা 'ভারতের শেষ গ্রাম' হিসেবেই পরিচিত। তবে সম্প্রতি বর্ডার রোড অর্গনাইজেশন এই গ্রামের বাইরেই নতুন এক সাইনবোর্ড বসাল। তাতে লেখা - 'ভারতের প্রথম গ্রাম'। বিগত কয়েক বছর ধরেই ভারত-চিন সীমান্তে অস্থির পরিস্থিতি বিরাজ করছে। লাদাখ থেকে অরুণাচলে বারংবার মুখোমুখি হয়েছে দুই দেশের সেনা। উত্তরাখণ্ডে অবশ্য সেরকম কিছু এখনও ঘটেনি। তবে কেন্দ্রীয় সরকার বারবার বলে এসেছে যে ভারতের এক ইঞ্চি জমিও ছাড়া হবে না। এরই মধ্যে ভারত-চিন সীমান্তে পরিকাঠামোগত উন্নয়নের দিকে নজর দিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। তাতে অবশ্য আপত্তি আছে চিনেক। এই আবহে 'মানা'-কে ভারতের 'প্রথম গ্রাম' হিসেবে তুলে ধরে চিনকেই বার্তা দেওয়া হলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা।

এই সাইনবোর্ড নিয়ে উত্তরাখণ্ডের মুখ্যমন্ত্রী পুষ্কর সিং ধামি এক টুইট বার্তায় লিখেছেন, 'এখন থেকে মানাকে আর ভারতের শেষ গ্রাম নয় বরং প্রথম গ্রাম হিসেবে চিহ্নিত করা হবে।' এর আগে গতবছর অক্টোবরে চমোলিতে গিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। সেই সময় প্রধানমন্ত্রী বলেছিলেন, 'ভারতের সীমান্তবর্তী গ্রামগুলিকে আমরা সাধারণত শেষ গ্রাম হিসেবে চিনে থাকি। তবে আদতে সেগুলি ভারতের প্রথম গ্রাম।' এই আবহে 'মানা'-তে নয়া সাইনবোর্ড প্রসঙ্গে ধামি টুইট বার্তায় লিখেছেন, 'আমাদের সরকার সীমান্তবর্তী এলাকার সার্বিক উন্নয়নের জন্য বদ্ধপরিকর।'

উল্লেখ্য, বদ্রিনাথ ধামের খুব কাছেই অবস্থিত এই 'মানা' গ্রাম। যেসব পর্যটক বদ্রিনাথ ঘুরতে যান, তাঁরা সাধারণত হিমালয়ের কোলে ছোট্ট এই গ্রামেও পা রাখেন। বদ্রিনাথ থেকে এই গ্রামের দূরত্ব মাত্র ৩ কিলোমিটার। ২০১১ সালের জনগণনা অনুযায়ী, এই গ্রামে মোট ৫৫৮টি পরিবার রয়েছে। মোট ১২১৪ জনের বাস ছিল এই গ্রামে। মূলত মারছাস এবং ভুটিয়া জনজাতির মানুষরাই থাকেন এই গ্রামে। সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে প্রায় ৩২০০ মিটার উচ্চতায় অবস্থিত এই গ্রাম। শীতকালে পুরো বরফের চাদরে ঢাকা পড়ে যায় এই গ্রাম। তাই সেই সময় এই গ্রামের গোটা জনসংখ্যা নীচে নেমে আসে।

ঘরে বাইরে খবর
বন্ধ করুন

Latest News

রবিতে ঝড় হবে ৪০ কিমিতে, সোমে বাড়বে বেগ, বুধ পর্যন্ত কোথায় কোথায় বৃষ্টি চলবে? সন্তান হওয়ার পর অবসাদে ভুগছেন ইলিয়ানা! নিজেকে ঠিক রাখতে কী করছেন? 'শীঘ্রই শুরু করছি...' গানের পর এবার নাচের স্কুল খুলছেন ইমন! বিজেপির ১৯৫ জন প্রার্থীর মধ্যে একমাত্র মুসলিম আবদুল সালাম! লড়ছেন কোন কেন্দ্রে? সিলেবাসের বাইরের অঙ্কের প্রশ্ন? প্রমাণ করতে পারলে ২৫ নম্বর, আশ্বাস ওই রাজ্যে জন্মদিন কাটতে না কাটতেই প্রেমে পড়লেন সৌমিতৃষা? কাকে মন দিয়ে বসলেন 'মিঠাই'? ব্যর্থ মন্ধানার দলের ব্যাটিং, RCB-কে ৭ উইকেটে হারিয়ে শীর্ষে উঠে এল হরমনহীন MI লোকসভা নির্বাচনে এবার BJP-র তুরুপের তাস ভোজপুরি অভিনেতারা! প্রার্থী হলেন কোন ৪জন কেন্দ্রীয় মন্ত্রীকে সরিয়ে টিকিট নবাগতা বাঁশুরিকে! BJPর প্রার্থী তালিকায় বহু চমক বিনা যুদ্ধে তৃণমূলকে উপহার, বিজেপির প্রার্থী তালিকা দেখে আর কী লিখলেন দেবাংশু?

Copyright © 2024 HT Digital Streams Limited. All RightsReserved.