বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > India's foreign exchange reserves dropped: ২০২৩-র প্রথম সপ্তাহেই ধাক্কা বৈদেশিক মুদ্রার ভাণ্ডার! কমল ১.২ বিলিয়ন ডলার

India's foreign exchange reserves dropped: ২০২৩-র প্রথম সপ্তাহেই ধাক্কা বৈদেশিক মুদ্রার ভাণ্ডার! কমল ১.২ বিলিয়ন ডলার

রিজার্ভ ব্যাঙ্কের তরফে শুক্রবার এই সংক্রান্ত সাপ্তাহিক পরিসংখ্যান প্রকাশ করা হয়।

India's foreign exchange reserves has been dropped by 1.2 bn in first week of 2023: বছরের শুরুতেই কমে গেল বৈদেশিক মুদ্রার সঞ্চয়।‌ ২০২১ সালে সর্বকালীন রেকর্ড ছুঁয়েছিল বৈদেশিক মুদ্রার ভাঁড়ার। তারপর থেকেই নিয়মিত পতনের সাক্ষী কেন্দ্রের বিদেশি মুদ্রার সঞ্চয়।

বিদেশি মুদ্রার সঞ্চয়ে জোর ধাক্কা খেল ভারত। জানুয়ারির প্রথম সপ্তাহেই একধাক্কায় কমে গেল বৈদেশিক মুদ্রার ভাঁড়ার। মোট ১.২৬৮ বিলিয়ন মার্কিন ডলার কমে গেল সঞ্চয়। বর্তমানে বিদেশি মুদ্রার মোট পরিমাণ ৫৬১.৫৮৩ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। রিজার্ভ ব্যাঙ্কের তরফে শুক্রবার এই সংক্রান্ত সাপ্তাহিক পরিসংখ্যান প্রকাশ করা হয়।

গত সপ্তাহে সমস্ত মিলিয়ে মোট সঞ্চয় ৪৪ মিলিয়ন মার্কিন ডলার বেড়ে ছিল। নতুন সঞ্চয়ের পরিমাণ বেড়ে দাঁড়িয়েছিল ৫৬২.৫৮১ বিলিয়ন মার্কিন ডলারে। তার আগের দুই সপ্তাহে পরপর পতন হয়েছিল মুদ্রার সঞ্চয়ে।

২০২১ সালের অক্টোবর মাস নাগাদ শিখর ছুঁয়েছিল বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ। কেন্দ্রীয় ব্যাঙ্কের ইতিহাসে তখন সর্বকালীন রেকর্ড গড়ে ৬৪৫ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের বিদেশি মুদ্রা ভাণ্ডার।‌ তবে এরপর থেকেই ঘাটতি দেখা দিতে থাকে সঞ্চয়ে। মূলত বিশ্বজুড়ে অর্থনৈতিক টালমাটালের জন্য পড়ছিল‌ টাকার দাম। সেই পতন আটকে রাখতেই কেন্দ্রীয় ব্যাঙ্কের বিদেশি মুদ্রা সঞ্চয়ে ভাঁটা শুরু হয়।

কেন্দ্রীয় ব্যাঙ্কের মুদ্রা সঞ্চয়ের একটি বড় অংশ হল বিদেশি মুদ্রা ভাণ্ডার। বিদেশি মুদ্রার মূল্য বেশি হওয়ায় স্বাভাবিকভাবেই এই সঞ্চয় বেশ গুরুত্বপূর্ণ। বিদেশি মুদ্রার পরিসংখ্যানে আমেরিকান ডলারের পাশাপাশি ইউরো, পাউন্ড ও ইয়েন মুদ্রাও থাকে। সবমিলিয়েই ডলার এককে প্রকাশ করা হয় বৈদেশিক মুদ্রা সঞ্চয়ের পরিসংখ্যান। তবে টাকার মূল্যে পতন আটকাতেই সঞ্চয় কমানোর প্রক্রিয়া শুরু করে আরবিআই।

আরবিআই থেকে প্রকাশিত সাপ্তাহিক পরিসংখ্যান মারফত জানা যায়, গত সপ্তাহে মোট সঞ্চয় ১.৭৪৭ বিলিয়ন মার্কিন ডলার কমেছে। ফলে সঞ্চয়ের পরিমাণ নেমে দাঁড়িয়েছে ৪৯৫.৪৪১ বিলিয়ন মার্কিন ডলারে।

এদিন সাপ্তাহিক পরিসংখ্যানে উল্লেখ করা হয়, কেন্দ্রীয় ব্যাঙ্কের সোনার সঞ্চয় একলাফে ৪৬১ মিলায়ন ডলার বেড়ে ৪১.৭৮৪ বিলিয়ন ডলারে দাঁড়িয়েছে।‌ অ্যাপেক্স ব্যাঙ্কের নিরিখে দেশের স্পেশাল ড্রয়িং রাইটস বেড়েছে ৩৫ মিলিয়ন। স্পেশাল ড্রয়িং রাইটস আন্তর্জাতিক মুদ্রা ভাণ্ডার (আইএমএফ)-এর একটি বিশেষ সুবিধা। এর মাধ্যমে সদস্য দেশগুলি নিজেদের বিদেশি মুদ্রা ভান্ডারে ভারসাম্য বজায় রাখতে পারে। তবে সাম্প্রতিক পরিসংখ্যান অনুযায়ী, আইএমএফে রিজার্ভের নিরিখে ভারত স্থান তালিকায় কিছুটা নেমেছে। ১৮ মিলিয়ন মার্কিন ডলার কমে ৫.১৪১ বিলিয়নে এসে দাঁড়িয়েছে রিজার্ভের নিরিখে দেশের স্থান।

এই খবরটি আপনি পড়তে পারেন HT App থেকেও। এবার HT App বাংলায়। HT App ডাউনলোড করার লিঙ্ক https://htipad.onelink.me/277p/p7me4aup

 

বন্ধ করুন