বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > জানুয়ারির মধ্যেই লকডাউনে বাতিল বিমানের টাকা ফেরত ইন্ডিগোর
জানুয়ারির মধ্যেই লকডাউনে বাতিল বিমানের টাকা ফেরত ইন্ডিগোর। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য রয়টার্স)
জানুয়ারির মধ্যেই লকডাউনে বাতিল বিমানের টাকা ফেরত ইন্ডিগোর। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য রয়টার্স)

জানুয়ারির মধ্যেই লকডাউনে বাতিল বিমানের টাকা ফেরত ইন্ডিগোর

ইতিমধ্যে ১,০০০ কোটি টাকা ফেরতের প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে।

লকডাউনের জেরে বাতিল বিমানের টিকিটের অর্থ সব যাত্রীদের ফিরিয়ে দেবে ইন্ডিগো। 'ক্রেডিট শেল'-এর মাধ্যমে আগামী বছরের ৩১ জানুয়ারির মধ্যে টাকা ফেরত দেওয়া হবে।

একটি বিবৃতিতে উড়ান সংস্থার তরফে জানানো হয়েছে, ইতিমধ্যে ১,০০০ কোটি টাকা ফেরতের প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। যা বাতিল টিকিটের প্রায় ৯০ শতাংশ। ইন্ডিগোর সিইও রণজয় দত্ত জানিয়েছেন, করোনাভাইরাসের সংক্রমণের জেরে গত মার্চের শেষ লগ্নে বিমান পরিষেবা পুরোপুরি স্থগিত হয়ে গিয়েছিল। তিনি বলেন, ‘আমাদের যেহেতু নগদ অর্থের জোগান কমে গিয়েছে, তাই অবিলম্বে বাতিল হওয়ার উড়ানের টাকা ফেরতের প্রক্রিয়া শুরু করতে পারছিলাম না। টাকা ফিরিয়ে দেওয়ার জন্য ক্রেডিট শেল তৈরি করা হয়েছিল। যে অর্থ আমাদের গ্রাহকরা পেতেন।’

তবে ধাপে ধাপে উড়ান পরিষেবা শুরু এবং যাত্রী চাহিদা বৃদ্ধির ফলে 'ক্রেডিট শেল'-এর মাধ্যমে দ্রুত টাকা ফিরিয়ে দেওয়ার উপর অগ্রাধিকার দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন ইন্ডিগোর সিইও। তিনি বলেন, ‘আমরা এটা জানাতে পেরে খুশি হচ্ছি যে ২০২১ সালের ৩১ জানুয়ারির মধ্যে ১০০ শতাংশ ক্রেডিট শেলের মাধ্যমে টাকা দেওয়া হবে।’

করোনাভাইরাস সংক্রমণ রুখতে প্রায় দু'মাস বন্ধ থাকার ২৫ মে থেকে শুরু হয়েছিল উড়ান পরিষেবা। সেদিন থেকেই পরিষেবা শুরু করেছে ইন্ডিগো। তবে আগামী বছর ২৩ মার্চ পর্যন্ত সাধারণ আন্তর্জাতিক উড়ান পরিষেবা স্থগিত আছে। তারইমধ্যে অক্টোবরে সব উড়ান সংস্থাকে আগামী বছর মার্চের মধ্যে যাত্রীদের টাকা ফিরিয়ে দেওয়ার প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ করার নির্দেশ দিয়েছিল সুপ্রিম কোর্ট।

বন্ধ করুন