বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > অনন্তনাগে ধরা পড়ল নিরাপত্তা বাহিনীর গুলিতে জখম আইএম সন্ত্রাসবাদী
বৃহস্পতিবার অনন্তনাগে সংঘর্ষের পরে পাহারায় মোতায়েন নিরাপত্তা বাহিনীর জওয়ান। ছবি: এএনআই।
বৃহস্পতিবার অনন্তনাগে সংঘর্ষের পরে পাহারায় মোতায়েন নিরাপত্তা বাহিনীর জওয়ান। ছবি: এএনআই।

অনন্তনাগে ধরা পড়ল নিরাপত্তা বাহিনীর গুলিতে জখম আইএম সন্ত্রাসবাদী

  • চেকিং চলার সময় মোটরবাইক আরোহী দুই সন্দেহভাজনকে থামানো হয়। সঙ্গে সঙ্গে বাইকের পিছনে বসা ব্যক্তি গুলি চালিয়ে পালানোর চেষ্টা করে। সংঘর্ষে বন্দুকধারী আহত হলে মোটরবাইক চালক পালিয়ে যায়।

বুধবার গভীর রাতে দক্ষিণ কাশ্মীরের অনন্তনাগ জেলায় নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে গুলির লড়াইয়ে জখম হয়ে ধরা পড়ল এক সন্ত্রাসবাদী। একই জেলার অন্য এক সংঘর্ষে জঙ্গিদের গুলিতে জখম হলেন এক সিআরপিএফ জওয়ান। 

পুলিশ জানিয়েছে, বিশ্বস্ত সূত্রে খবর পেয়ে পুলিশ ও নিরাপত্তা বাহিনীর যৌথ দল গান্ড বাবা খলিল এলাকার সঙ্গম নয়না রোডে চেক পয়েন্ট বসায়। গভীর রাতে সেখানে চেকিং চলার সময় মোটরবাইক আরোহী দুই সন্দেহভাজনকে থামানো হয়। সঙ্গে সঙ্গে বাইকের পিছনে বসা ব্যক্তি গুলি চালিয়ে পালানোর চেষ্টা করে। 

হামলাকারীদের লক্ষ্য করে পালটা গুলি চালায় নিরাপত্তা বাহিনীও। সংক্ষিপ্ত সংঘর্ষে বন্দুকধারী আহত হলে মোটরবাইক চালক পালিয়ে যায়। আহত জঙ্গিকে গ্রেফতার করার পরে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে ভরতি করা হয়। পুলিশ জানিয়েছে, আহত সন্ত্রাসবাদীর নাম জাহির আব্বাস লোন। সে পুলওয়ামা জেলার বাসিন্দা। হিজবুল মুজাহিদিন জঙ্গি সংগঠনের সে সক্রিয় সদস্য।

পুলিশের দাবি, ঘটনাস্থল থেকে একাধিক আগ্নেয়াস্ত্র ও গুলি উদ্ধার করা হয়েছে। ধৃতের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধি ও সন্ত্রাস আইনের একাধিক ধারায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

বুধবার বিজবেহরা অঞ্চলে একটি গ্রেনেড হামলার কথা জানতে পারে পুলিশ। বেলা ১২.১৫ নাগাদ ওই ঘটনায় আহত হন সিআরপিএফ ৪০ ব্যাটালিয়নের একজওয়ান। তাঁকে চিকিৎসার জন্য স্থানীয় হাসপাতালে ভরতি করা হয়েছে। ঘটনার তদন্তে নেমেছে পুলিশ।

বন্ধ করুন