বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > পঞ্জাব ইস্যুতে মোদীর ভাবমূর্তি নিয়ে খালিস্তানিপন্থীদের কোন উদ্দেশ্য রয়েছে ?
নরেন্দ্র মোদী। ছবি সৌজন্য এএনআই (ANI)

পঞ্জাব ইস্যুতে মোদীর ভাবমূর্তি নিয়ে খালিস্তানিপন্থীদের কোন উদ্দেশ্য রয়েছে ?

  • পঞ্জাব সীমান্তে যে ক্রমাগত খালিস্তান বিরোধী গোষ্ঠী মাথাচাড়া দিচ্ছে , সে সম্পর্কে কড়া নজর রাখছে মোদী সরকার।

সদ্য পঞ্জাবের ফিরোজপুর ফ্লাইওভারে প্রধানমন্ত্রী মোদীর কনভয় ঘিরে নিরাপত্তায় গলদের অভিযোগ উঠেছে। রাস্তায় প্রতিবাদ জমায়েতের জেরে প্রধানমন্ত্রীর কনভয়কে কিছুক্ষণ দাঁড়িয়ে থাকতে হয়। এই ঘটনা ঘিরে, পঞ্জাব সরকার ও কেন্দ্রের মধ্যে বক্তব্য, পাল্টা বক্তব্য উঠে আসতে শুরু করেছে। এদিকে, এই ইস্যুর মাঝেই কলম ধরেছেন বিশিষ্ট সাংবাদিক  শিশির গুপ্ত। তিনি মোদীর ভাবমূর্তি ও খালিস্তানি বিচ্ছিন্নতাবাদীদের প্রসঙ্গ তুলে বিভিন্ন দিকে আবোকপাত করেছেন।

এই বিশিষ্ট সাংবাদিকের লেখায় উঠে এসেছে, ২০১৪ নির্বাচনের কথা। যখন পঞ্জাবে লোকসভা নির্বাচন ঘিরে প্রচারে যান অমিত শাহ। সেখানে হরমন্দির সাহিবে তাঁর শ্রদ্ধা অর্পণ থেকে শুরু করে শিখ সম্প্রদায়ের প্রতি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর শ্রদ্ধাশীল ভাবনার বিভিন্ন দিক নিয়ে আলোচনা করেছেন শিশির গুপ্ত। এছাড়াও, কৃষকদের দাবি মেনে গুরু পরবে তিনটি কৃষি আইন তুলে নেওয়ার মতো মোদী সরকারের পদক্ষেপেরও প্রসঙ্গ তুলে তিনি পঞ্জাব সম্পর্কে কেন্দ্রের বিজেপি সরকারকে ভাবধারার বিষয়টি তুলে ধরেন। তবে অভিযোগ, অনেক ক্ষেত্রে কৃষকদের ছদ্মবেশ ধরে খালিস্তানি বিচ্ছিন্নতাবাদীরা বিশ্বের বিভিন্নপ্রান্ত থেকে ভয়ঙ্কর খেলা খেলছেন। শিশির গুপ্ত লিখছেন, খালিস্তানপন্থী বিচ্ছিন্নতাবাদীরা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, ইউকে, জার্মানি, ক্যানাডা থেকে বসে এই খেলায় মেতেছেন। যেখানে অনেকেই বুঝতে পারছেন না যে, পশ্চিমী দেশগুলি চিরকালই চায় যে ভারত মাথা ঝুঁকিয়ে রাখুক। লেখকের মতে, খালিস্তানপন্থীদের এই পরিকল্পনার অন্যতম উদ্দেশ্য হল, বিজেপি ও প্রধানমন্ত্রী মোদীর ভাবমূর্তি পঞ্জাববিরোধী বলে প্রতিষ্ঠা করা। এরফলে পঞ্জাবের রাজনীতিতে অনেকটাই সুখকর জায়গায় থাকছে বিজেপি বিরোধীদলগুলি।

 

উল্লেখ্য, পঞ্জাব-পাকিস্তান সীমান্ত লাগোয়া বিভিন্ন এলাকায় খালিস্তানিপন্থী গোষ্ঠীরা সক্রিয়। যার হাত ধরে, ফিরোজপুরের ঘটনা একটি উস্কানিমূলক ঘটনায় মোড় নেওয়ার সম্ভাবনা তৈরি হয়েছিল। যার জেরে সাম্প্রদায়িকতার ইস্যু উঠে আসতে পারত। তবে বিজেপি সেই ফাঁদে পা দেয়নি। পঞ্জাব সীমান্তে যে ক্রমাগত খালিস্তান বিরোধী গোষ্ঠী মাথাচাড়া দিচ্ছে , সে সম্পর্কে কড়া নজর রাখছে মোদী সরকার। এদিকে, আরএসএসের কাছেও স্পষ্ট যে, এই সাম্প্রদায়িক ইস্যু ঘিরেই শেষ বিধানসভা নির্বাচনে অকালিদলের সঙ্গে বিজেপি ভোট ময়দানে নামেনি পঞ্জাবে। এমনই মত বিশিষ্ট সাংবাদি ক শিশির গুপ্তের। এদিকে পঞ্জাবের অন্দরে 'ঘরের শত্রু'কে খুঁজে বের করতে ইতিমধ্যেই শুরু হয়ে গিয়েছে নিরাপত্তা বাহিনীর তল্লাশি। যাতে সীমান্ত পার হয়ে পঞ্জাবে আফগানি হেরোইন না আসে, পাকিস্তানের বুক থেকে যাতে, অস্ত্র না প্রবেশ করে পঞ্জাবে। যেখানে পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান ঘরের অন্দরে রাজনৈতিক চাপে রয়েছেন, সেখানে কাশ্মীরে ধাক্কা খেয়ে পঞ্জাব ইস্যুর দিকে নজর ঘোরাতে ইমরান সরকার যে কোনও কসরতই ছাড়বে না, তা বলাই বাহুল্য। সেই দিক থেকে খালিস্তানি শক্তি নিয়ে আরও তল্লাশি ও অপরাধীদের গ্রেফতারির দাবি তুলে নিজের লেখায় বার্তা দিয়েছেন বিশিষ্ট সাংবাদিক শিশির গুপ্ত।

বন্ধ করুন